অবশেষে রওশনারা বেগম পেলেন বিধবা ভাতার বই

জুন ০৬ ২০১৭, ১২:৫১

পটুয়াখালী প্রতিনিধি: অবশেষে রওশনারা বেগম পেলেন বিধবা ভাতার বই। আর এ বই তুলে দিলেন সমাজ কল্যান অধিদপ্তর পটুয়াখালীর উপ-পরিচালক শিলা দাস। উপ-পরিচালকের এমন মহানুভবতায় খুশী রওশনারা বেগম। তবে সাংবাদিকদের ধন্যবাদ জানাতে ভোলেননি হতভাগ্য এ নারী।
১মে বিভিন্ন দৈনিক ও অনলাইন পোর্টালে প্রকাশিত সংবাদ ”ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যদের কাছে ধরনা দিয়ে শত মিনতির পরেও বয়োবৃদ্ধা রওশনারা বেগমের ভাগ্যে জোটেনি বিধবা ভাতার কার্ড” দৃষ্টিগোচরে আসে সমাজ কল্যান অধিদপ্তর পটুয়াখালীর উপ-পরিচালক শিলা দাসের। তার মহানুভবতায় এবং তাৎক্ষনিক পদক্ষেপে রওশানারা বেগমের ভাগ্যে জোটে বিধবা ভাতার বই। ৫মে তিনি রওশনারা বেগমের হাতে তুলে দেন এ বই। এসময় উপস্থিত

ছিলেন সংশ্লিস্ট ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মজিবুর রহমান। এমন একটি কাজ করার সুযোগ তৈরি করে দেয়ার জন্য ধণ্যবাদ জানিয়ে উপ-পরিচালক শিলা দাস বলেন, আসলে আমরা অনেক কিছু নাও জানতে পারি। সাংবাদিক সমাজের মানুষরা মাঝে মধ্যে যদি আমাদের অসংগতি গুলো ধরিয়ে দিলে আমাদের কাজ করতে সুবিধা হয়।
উল্লেখ্য, উপজেলার লালুয়া ইউনিয়নের চৌধুরীপাড়া গ্রামের হেলাল ফকিরকে স্ত্রী রোশনা বেগম (৫৬)। বিধবা হয়েছেন ২৬ বছর পূর্বে। সিডরে স্বামীর ভিটে নদী গর্ভে বিলীন হওয়ায়, থাকেন অন্যের বাড়ীতে আশ্রিতা হয়ে। বাঁশ আর পরিথিনের তৈরি একটি ঝুপড়ি ঘরে। প্রায় বয়সের ভারে রোগাক্রান্ত শরীর নিয়ে খেয়ে না খেয়ে দিন পার করছেন।

Facebook Comments