আমতলীতে এক মেয়েকে দুই জনের কাছে বিয়ে দিলেন বাবা!

জুন ১৫ ২০১৭, ২৩:৩৮

আমতলী প্রতিনিধি: ৯ম শ্রেণিতে পড়ুয়া তামান্নাকে দু’ বরের কাছে বাল্যবিয়ে দিয়ে বাবা হাবিব শিকাদার ফেঁসে গেছেন। ঘটনা ঘটেছে বরগুনার তালতলী উপজেলার আঙ্গাপাড়া গ্রামে। পুলিশ ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে। পরে বৃহস্পতিবার (১৫ জুন) সকালে পুলিশ মেয়েকে বাল্যবিয়ে না দেয়ার শর্তে মুচলেকা রেখে ছেড়ে দিয়েছে বাবাকে।
জানা গেছে, আলীর বন্দর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ছাত্রীকে বাবা হাবিব শিকদার কড়াইবাড়ীয়া গ্রামের কাদের ঘরামীর ছেলে হাসানের সাথে তিন মাস আগে বিয়ে দেয়। কিছুদিন পরে প্রথম বিয়ের ঘটনা গোপন রেখে বাবা পটুয়াখালী জেলার কলাপাড়া উপজেলার ধানখালী গ্রামের মন্নান হাওলাদারের ছেলে ছগির হাওলাদারের সাথে এক মাস পূর্বে দ্বিতীয় বিয়ে দেয়। বুধবার (১৪ জুন)

রাতে হাবিব শিকদারের বাড়ীতে দু’বর পক্ষের লোকজন নববধূকে নিতে আসেন। বৌ নেয়াকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মধ্যে কথাকাটাকাটির এক পর্যায় ওই বাড়ীতে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। পরে তালতলী থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করার জন্য নববধূ তামান্না, বাবা হাবিব শিকদার, প্রিন্স ও আউয়ালকে ওই রাতে তালতলী থানায় আটক করে রাখা হয়। এরপর বৃহস্পতিবার সকালে মেয়ের বাবা মেয়েকে বাল্য বিয়ে না দেয়ার মুচলেকা রেখে পুলিশ আটক চারজনের সকলকে ছেড়ে দিয়েছে। তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা কমলেশ চন্দ্র হালদার জানান, পরিস্থিতি শান্ত করার জন্য ওই ৪ জনকে থানায় আনা হয়। বৃহস্পতিবার সকালে মুচলেকা রেখে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>