ইরাকে আইএসের খিলাফত শেষ

জুন ৩০ ২০১৭, ১১:৪০

তিনবছর আগে মসুলের আল নুরি মসজিদ দখল করে যে খিলাফতের ঘোষণা দিয়েছিলেন তথাকথিত ইসলামিক স্টেট (আইএস) নেতা আবু বকর আল বাগদাদি, এবার সেই মসজিদ পুনরুদ্ধার করে আইএসের ‘খিলাফত শেষ’ হয়েছে বলে ঘোষণা দিয়েছে ইরাকি বাহিনী।
আইএসও হয়তোবা এই পতনের ব্যাপারে ধারণা করতে পেরেছিলো। তাই এক সপ্তাহ আগেই ওই ঐতিহাসিক মসজিদটির মিনারসহ অন্যান্য অংশ ভেঙে গুঁড়িয়ে দিয়েছে তারা। তখনই যুক্তরাষ্ট্র ও ইরাক জানায়, ওই জঙ্গি গোষ্ঠীর দেয়ালে পিঠ ঠেকে গিয়েছে। আর সে কথা বুঝতে পেরেই ইতিহাসের সাক্ষী ওই মসজিদ ও মিনার গুঁড়িয়ে দিয়েছে তারা। যদিও আইএস দাবি করেছিল, ওই মসজিদ ও মিনার ধ্বংস করেছে মার্কিন জোটশক্তি। কিন্তু আইএসের দাবি উড়িয়ে দিয়েছিল মার্কিন বাহিনী।
এই ঘটনার পরে বিশেষ বাহিনীর মেজর জেনারেল স্যামি আল-আরিদি সতর্কতা জারি করেছিলেন, মসজিদের ধ্বংসস্তূপে বিস্ফোরক রেখে দিয়ে থাকতে পারে জঙ্গিরা। গতকাল বিস্ফোরক নিয়ে টাইগ্রিস নদী পেরিয়ে শহরের
পশ্চিম থেকে পূর্ব দিকে যাওয়ার চেষ্টা করছিল এক আইএস জঙ্গি। সেই সময় তাকে হত্যা করে সেনারা।
ইরাকি সেনার মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইয়াহিয়া রসুল সংবাদমাধ্যমের কাছে জানিয়েছেন, ইরাকে আইএস জঙ্গিদের যে আধিপত্য, তা ধ্বংস হলো। তবে ইরাকে আইএসকে পুরোপুরি ধ্বংস করার কাজ যে এখনো কঠিন তা মানছে মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোটশক্তি। শুক্রবার এক ঘোষণায় ইরাকে নিজেদের সামরিক বাহিনী রাখার মেয়াদ ২ বছর বাড়িয়েছে কানাডা। ইরাকে কানাডার প্রায় ২ হাজার কম্যান্ডো রয়েছে।
এর আগে, যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষা সচিব মাইকেল ফেলনও এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘মসুলে ২০১৪ সালে ভয়াবহ যুদ্ধের যে খেলা শুরু করেছিলো আইএস, এখন এর শেষ ধাপে রয়েছে তারা। ইরাকী বাহিনীর সঙ্গে এক হয়ে এখানে অন্তত ৭শ’টি সফল অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। এর ফলে, ধীরে ধীরে সীমিত হয়ে পড়েছে আইএসের বলয়। ইতোমধ্যে সিরিয়ার রাক্কা শহর থেকেও তাদের বিতাড়িত করা হয়েছে।’ বিবিসি ও আল-জাজিরা।0
Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>