কলকাতায় একই মঞ্চে আজীবন সম্মাননা পেলেন রাজ্জাক ও রঞ্জিত মল্লিক

আপডেট : June, 6, 2017, 11:53 am

একসঙ্গে একমঞ্চে ‘আজীবন সম্মাননা’ পেলেন বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গের চলচ্চিত্রের দুই জীবন্ত কিংবদন্তি নায়করাজ রাজ্জাক ও রঞ্জিত মল্লিক। গত ৪ জুন কলকাতার নজরুল মঞ্চে ১৬তম টেলি-সিনে অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে চলচ্চিত্রের এ দুই নক্ষত্রের হাতে সম্মাননা তুলে দেয়া হয়। পশ্চিমবঙ্গের নারী, শিশু ও সমাজকল্যাণমন্ত্রী শশী পাজা নায়করাজ ও রঞ্জিত মল্লিকের হাতে এই সম্মাননা তুলে দেন। সম্মাননা হাতে পাওয়ার পর নায়করাজ রাজ্জাক তার অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে বলেন, ‘অনেক ধন্যবাদ যারা আজ আমায় কলকাতার মাটিতে, আমার জন্মভূমিতে আমাকে আজীবন সম্মাননায় ভূষিত করেছেন। আমি সত্যিই অনেক আবেগাপ্লুত। আমার জন্মভূমিতে এমন প্রাপ্তি, সত্যিই আমার জন্য বিরাট এক প্রাপ্তি। বাংলাদেশ থেকে আমি দেশের সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় সম্মানা যেমন পেয়েছি। পেয়েছি তেমন কোটি কোটি দর্শকের ভালোবাসা। কলকাতারও কিছু চলচ্চিত্রে আমি অভিনয় করেছি। তাই এখানকার শিল্পীদের সঙ্গেও আমার জানা-শোনা আছে। যারা আমাদের এ সম্মানে ভূষিত করলেন

তাদের সবার প্রতিই আমি কৃতজ্ঞ। সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন।’ আজীবন সম্মাননা প্রাপ্তি প্রসঙ্গে রঞ্জিত মল্লিক বলেন, ‘রাজ্জাক ভাইয়ের সঙ্গে এই মঞ্চেই দীর্ঘদিন পর আমার সাক্ষাৎ। সত্যিই তার সঙ্গে দেখা হয়ে ভীষণ ভালো লাগছে। আমি চলচ্চিত্রের জন্য সারা জীবন যা করে এসেছি, তার স্বীকৃতি স্বরূপ এই আজীবন সম্মাননা প্রাপ্তিতে ভীষণ ভালো লাগছে। যারা আমাকে সম্মানিত করেছেন তাদের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা।’ এছাড়াও এ টেলিসিনে অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ থেকে নিজ নিজ ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ অবদানের জন্য সম্মাননা লাভ করেন আইয়ুব বাচ্চু, চিত্রনায়ক শাকিব খান, হাবিব ওয়াহিদ, কণা, চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়া, চঞ্চল চৌধুরী ও শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র হিসেবে অমিতাভ রেজা নির্দেশিত ‘আয়নাবাজি’। অনুষ্ঠানে আইয়ুব বাচ্চুর সঙ্গে একই মঞ্চে সঙ্গীত পরিবেশন করেন রূপম ইসলাম। নিজের একটি গানে পারফর্ম করেন দিলশাদ নাহার কণা। চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়ার নাচে গানের অসাধারণ পারফরমেন্স উপস্থিত দর্শককে মুগ্ধ করে।

Facebook Comments