কলাপাড়ায় স্বামীর আগুনে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন অন্ত:সত্তা বধু

মে ২৬ ২০১৭, ২৩:৩৫

কলাপাড়া প্রতিনিধি: পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় স্বামী ছোবাহান গাজীর লাগিয়ে দেয়া আগুনে দগ্ধ হয়ে মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন স্ত্রী ফাতেমা। তিন্ মাসের অন্ত:সত্ত্বা এই গৃহবধুকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পরে নাচনাপাড়া গ্রামে ফাতেমাকে এমন নৃশংসভাবে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয়। চিকিৎসকরা বলেছেন ফাতেমার শরীরের ৭৫ শতাংশ পুড়ে গেছে। ফাতেমা ও তার স্বজনরা জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ম্যাচের কাঠি জ¦ালিয়ে ফাতেমার পড়নের ম্যাক্সিতে আগুন লাগিয়ে দেয় পাষন্ড স্বামী ছোবাহান। ফাতেমা দগ্ধ হয়ে ডাকচিৎকার করলে সটকে পড়ে ছোবাহান। পড়শিরা আগুন নিভিয়ে শঙ্কাজনক অবস্থায় ফাতেমাকে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করে। রাতেই তাকে শঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে। পুলিশ

হাসপাতালে গিয়ে ফাতেমার সঙ্গে কথা বলে অভিযুক্ত পাষন্ড স্বামী ছোবাহান গাজীকে গ্রেফতার করে। তার বিরুদ্ধে একটি মামলা হয়েছে। ফাতেমার স¦জনরা আরও জানান, পুড়িয়ে হত্যার জন্য ফাতেমার গায়ে আগুন লাগানো হয়। চরম অভাবের সংসার ফাতেমার। দুই বছর তিন মাস বয়সী বড় সন্তান রূপাকে ফাতেমা তার দাদি হাসিনার কাছে রাখত। হাসিনা পৌরশহরের নতুন বাজারে থাকেন। বুধবার ওই মেয়েকে দেখতে যায় ফাতেমা। এনিয়েও রাতে ঝগড়া হয় স্বামীর সঙ্গে। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে জ¦লন্ত সিগারেট ফাতেমার গালে চেপে ধরে স্বামী ছোবাহান। তখনই হুমকি দেয় পুড়িয়ে মারার। কলাপাড়া থানার ওসি জিএম শাহনেওয়াজ জানান, পাষন্ড স্বামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ বিষয়ে কলাপাড়া থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>