ঘূর্ণিঝড় ‘মোরা’ মোকাবেলায় বরিশালের ২৩৬টি আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত

মে ২৯ ২০১৭, ১৮:০৮

গভীর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত ঘূর্নিঝড় ‘মোরা’ মোকাবেলায় বরিশালে ২৩৬টি সাইক্লোন শেল্টার (আশ্রয়কেন্দ্র) প্রস্তুত রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে ঘূর্নিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচীর (সিপিপি)।

বরিশাল সিপিপি’র উপ-পরিচালক আব্দুর রশিদ জানান, ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় বরিশাল অঞ্চলে ৬ হাজার ১শ’ ৫০ জন স্বেচ্ছাসেবীকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। ইউনিয়ন, উপজেলা ও জেলা পর্যায়ে ঘূর্নিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচীর প্রস্তুতি সভা করা হয়েছে। জনগনকে সতর্ক করতে উপকূলীয় এলাকায় স্বেচ্ছাসেবীদের মাধ্যমে মাইকিং করা হয়েছে।

এদিকে সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় জেলা প্রশাসনের সভাকক্ষে জেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় জেলা প্রশাসক ড. গাজী মো. সাইফুজ্জামান ঘূর্নিঝড় আঘাত হানলে ভীত-সন্ত্রস্ত না হয়ে সাহসিকতার সাথে পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, জনগনকে সাইক্লোন শেল্টারে আশ্রয় নিতে বলার মতো পরিস্থিতি এখনও হয়নি। তারপরও বরিশাল

জেলায় ২৩৬টি সাইক্লোন শেল্টার প্রস্তুত রাখা হয়েছে। সব উপজেলায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা করা হয়েছে। এসব সভায় জনগনকে সচেতন করার জন্য সংশ্লিস্টদের নির্দেশ দেয়া হয়। পর্যাপ্ত ত্রান সামগ্রী মজুদ রয়েছে। ঘূর্নিঝড় আঘাত হানলেও পরবর্তীতে ক্ষতিগ্রস্থদের পুনর্বাসনের জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি প্রশাসনের রয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

ঘূর্ণিঝড় ‘মোরা’ উপকূল অতিক্রমকালে দ্বীপ ও চর সমূহে ভারী থেকে অতিভারী বর্ষন সহ ঘন্টায় ৬২ থেকে ৮৮ কিলোমিটার বেগে দমকা ও ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ার আশংকা করা হয়েছে। এ সময় স্বাভাবিকের চেয়ে ৪ থেকে ৫ ফিট জলোচ্ছাসের আশংকা করা হয়েছে।

এদিকে দূর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে গতকাল সোমবার বেলা ১২টা থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত বরিশালের অভ্যন্তরীণ ও স্থানীয় রুটের সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে বিআইডব্লিউটিএ।

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>