চুরির অপবাদে ছাত্রীকে বেত্রাঘাত ও নির্যাতনের ঘটনায় আটক-২

আগস্ট ১২ ২০১৭, ২১:১৩

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ বরিশালে গৌরনদীতে তৃতীয় শ্রেনীর এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে একশ’ টাকা চুরির অপবাদে বেত্রাঘাত ও নির্যা তনের অভিযোগে মামলা দায়েরের পর ২ জনকে আটক করেছে থানা পুলিশ।
শনিবার বিকেলে তাদের আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেন গৌরনদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মনিরুল ইসলাম। তিনি জানান,শনিবার সকালে ছাত্রীকে বেত্রাঘাত ও মারধরের ঘটনায় শিশুটির মা
রেনু বেগম একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় এজাহার ভুক্ত আসামীদের মধ্যে
মাদ্রাসার শিক্ষক হাফিজা বেগম ও ফাতেমা আক্তার লিজাকে আটক করা হয়েছে।

এরআগে গত বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার খাদিজাতুল কোবরা (রাঃ) মহিলা কওমী মাদ্রাসার আবাসিক হলের তৃতীয় শ্রেনীর (তৃতীয় জামাতের) ছাত্রী কামরুন নাহার সুমাইয়াকে একশ’ টাকা

চুরির অপবাধ দিয়ে মাদ্রাসার সুপার (বড় খালামনি হিসেবে পরিচিত) খাদিজা আক্তারসহ বেশ কয়েকজন মিলে বেত্রাঘাত ও নির্যাতন করে বলে অভিযোগ ওঠে।

শুক্রবার সকালে শিশুছাত্রী কামরুন নাহার সুমাইয়ার মা গৌরনদী উপজেলার পশ্চিম শাওড়া গ্রামের সৌদি প্রবাসী মোঃ কামাল হোসেন বেপারীর স্ত্রী রেনু বেগম জানতে পারেন। তিনি ওই দিনই মেয়েকে উদ্ধার করে গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।
সেসময় রেনু বেগম স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, মাদ্রসার বড় খালামনি (শিক্ষক) খাদিজা আক্তারের নির্দেশে মুখে গামছা বেধে আবাসিক হলের মেঝ খালামনি ও বাংলা খালামনি বেত্রাঘাত করে জখম করেছে।

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>