ছাত্রলীগে বিবাহিতদের ৭২ ঘন্টার আল্টিমেটাম

ডেস্ক রিপোর্টঃ বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি ও বিভিন্ন ইউনিট শাখার নেতৃত্বে যারা বর্তমানে বিবাহিত রয়েছেন, তাদের স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করতে ৭২ ঘন্টার আল্টিমেটাম দেওয়া হয়েছে। এই নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তারা স্বেচ্ছায় পদত্যাগ না করলে কারো বিরুদ্ধে এই অভিযোগ থাকলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে আজ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলীয় কার্যালয়ে বুধবার সকাল ১০ টায় শুরু হওয়া সাধারণ সভা বিকেল পর্যন্ত চলে। কেন্দ্রীয় সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইনের পরিচালনায় অধিকাংশ নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতিসহ ৫টি গুরুত্বপূর্ণ এজেন্ডা নিয়ে আলোচনা করা হয়। সাধারণ সভার অন্যান্য এজেন্ডাগুলোর মধ্যে শোকাবহ আগষ্টের কার্যক্রম নির্ধারণ, সংগঠনের পদধারী বিবাহিত নেতাদের স্বেচ্ছায় পদত্যাগ, মাদকাশক্ত নেতা-কর্মীদের চিহ্নিত করে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ ও নিরক্ষরতা দূরীকরণ।

সভার শুরুতেই ছাত্রলীগ সভাপতি আলোচনার ৫ টি এজেন্ডার কথা জানালে সেগুলো নিয়ে আলোচনা শুরু করেন কেন্দ্রীয় নেতারা। এছাড়া বিভিন্ন সাংগঠনিক বিষয় নিয়েও নানা সমস্যা ও সেগুলোর প্রতিকার নিয়ে আলোচনা করেন তারা। এদিন সাধারণ সভায় বিভিন্ন বিষয় নিয়ে খোলামেলা আলোচনার সুযোগ পাওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেন নেতারা।

বক্তব্যের শুরুতেই ছাত্রলীগের যেকোনো ইউনিটে পদধারী বিবাহিত নেতা-কর্মীদের ৪৮ থেকে ৭২ ঘন্টার মধ্যে সেচ্ছায় পদত্যাগের নির্দেশ দেন সংগঠনের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এসএম

জাকির হোসাইন।

এছাড়া সংগঠনকে শক্তিশালী, গতিশীল ও নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নিতে সকল জেলায় সাংগঠনিক দায়িত্বপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় নেতাদের আগামী ১৫ থেকে ২৫ জুলাই স্ব স্ব ইউনিটে যাওয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়। এসময় তারা বিভিন্ন উপজেলা, কলেজ, পৌর, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার বিষয়ে জেলা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককের সঙ্গে কাজ করবেন।

পাশাপাশি মাদকাসক্ত নেতা-কর্মীদের চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ এবং নিরক্ষরমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার বিষয়ে ছাত্রলীগকে যথাযথ ভূমিকা রাখার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়। এছাড়াও বিজ্ঞান মেলা, জেলা-উপজেলা ও ইউনিয়ন নেতাদের যেন একটি অ্যাপসের মাধ্যমে যোগাযোগ বাড়ানো যায় সে বিষয়েও কথা বলেন নেতারা।

এদিন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ৪২দিন ব্যাপী কর্মসূচি পালনের প্রস্তাব করেন সংগঠনের সহ-সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রনি।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সংগঠনের নেতাকর্মীদের নৌকার পক্ষে কাজ করতে নির্দেশ  দেন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। তারা বলেন, ছাত্রলীগ কারো পাহাড়ার নয়। ছাত্রলীগ দেশরত্ন শেখ হাসিনার ভ্যানগার্ড। তিনি যে নির্দেশ দেবেন, ছাত্রলীগ তাই পালন করবে। জেলা-উপজেলা নেতাদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে রাজনীতি করার পরামার্শ দেন। বর্তমানে আওয়ামী লীগের যেসব উন্নয়ন হয়েছে, সে উন্নয়নগুলো জনগণের সামনে তুলে ধরার নির্দেশ দেন।

নেতাকর্মীদের ফেসবুকের রাজনীতি বাদ দিয়ে তৃণমূলে সংগঠনকে এগিয়ে নিতে সাধারণ কর্মীদের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক স্থাপন ও সংগঠনকে আরও গতিশীল করতে কেন্দ্রীয় নেতাদের নির্দেশ দেন ছাত্রলীগ সভাপতি-সম্পাদক।

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>