জলবায়ু চুক্তি কার্যকরে নেতৃত্ব দেবে চীন ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন

আপডেট : June, 1, 2017, 11:35 am

শনিবার জি-৭ এর বৈঠকে জলবায়ু পরিবর্তন রোধে প্যারিস চুক্তি কার্যকরের বিষয়ে জোটভুক্ত ছয়টি দেশ একমত হলেও, তাদের সঙ্গে ঐক্য জানাতে অস্বীকার করেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ফলে স্বাভাবিকভাবেই এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের এতদিনকার নেতৃত্ব আর কার্যকর থাকছে না। এই ইস্যুতে এখন নেতৃত্ব দেবার জন্য প্রস্তুত হচ্ছে চীন এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন।
শুক্রবার ব্রাসেলস সম্মেলনে চীন ও ইইউ এ নিয়ে একটি যৌথ বিবৃতি দিতে যাচ্ছে বলে জানতে পেরেছে বিবিসি। প্যারিস চুক্তি বাস্তবায়নে সর্বোচ্চ রাজনৈতিক প্রতিশ্রুতির উপর জোড় দেয়া হয়েছে ঐ বিবৃতিতে।
ধারণা করা হচ্ছে, চীন এবং ইইউ এর এই অবস্থান আন্তর্জাতিক রাজনীতিতে যুক্তরাষ্ট্রকে কিছুটা চাপের মধ্যে ফেলবে। বলা হচ্ছে, গত বছর খানেক ধরেই চীন এবং ইইউ জলবায়ু পরিবর্তন
এবং ক্লিন এনার্জি নিয়ে ঐক্যমত্যে পৌঁছে একটি যৌথ বিবৃতি দেবার বিষয়ে কাজ করছিল।
প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হবার আগেই, জলবায়ু বিষয়ক আন্তর্জাতিক চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে সরিয়ে আনার ব্যাপারে অবস্থান ছিল ট্রাম্পের। সেই ধারাবাহিকতায়, ট্রাম্প জানিয়েছেন, প্যারিস জলবায়ু চুক্তিতে থাকা না থাকার বিষয়ে তিনি শীঘ্রই ঘোষণা দেবেন।
এর আগে, জলবায়ু পরিবর্তন হুমকি মোকাবেলায় বিশ্বকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, ‘জলবায়ু চুক্তি একেবারেই অপরিহার্য’। যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক ইউনিভার্সিটিতে দেয়া এক ভাষণে তিনি এই আহ্বান জানান। এসময় তিনি বলেন, ‘২০১৫ সালের প্যারিস জলবায়ু চুক্তি নিয়ে কোনো দেশ সন্দেহ পোষণ করলেও, অন্য দেশগুলোকে আরো বেশি ঐক্যবদ্ধ হয়ে এ লক্ষ্যে কাজ করে যেতে হবে।’ বিবিসি।
Facebook Comments