ঝালকাঠিতে কলেজ ছাত্রীর মৃত্যু, মামলা দায়ের

আগস্ট ০৪ ২০১৭, ২০:৩৬

ঝালকাঠি: ঝালকাঠিতে বুধবার গভীর রাতে বিনয়কাঠি কলেজের দ্বাদশ শ্রেনীর মেধাবী ছাত্রী আরিফা আক্তার (১৮) ঘরের সামনের বারান্দার আড়ার সাথে গলায় ওড়না বেধে বসিয়ে রেখে গেছে অজ্ঞাত দূর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার সকালে বিষয়টি ঝালকাঠি থানা পুলিশকে জানালে বেলা ১১ টায় পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্ত’র জন্য ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে প্রেরন করেন। রমজানকাঠি গ্রামের আঃ মালেক মোল্লার মেয়ে আরিফা আক্তার নিহতের ঘটনায় মৃতের চাচা মোঃ মন্টু মোল্লা বাদী হয়ে ঝালকাঠি থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা (নং ১৮) দায়ের করেন।
তবে নিহতের মা ও স্বজনরা আহাজারী করে জানায় , ডিভোর্সের বদলা নিতে সাবেক স্বামী রাসেলের নেতৃত্বে তার সহযোগী বন্ধুরা মেধাবী ছাত্রী আরিফাকে মোবাইল ফোনে ডেকে বাইরে নিয়ে ধর্ষন করে হত্যার পর দেহটি বসিয়ে রেখে গলায় দড়ি ঝুলিয়ে আত্মহত্যা সাজানোর ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। তাদের সন্দেহের স্বপক্ষে নিহত আরিফা গলায় বাধা রশির একপ্রান্ত ঘরের আঁড়ার উপর ঝুলানো থাকলেও তার দেহ মাটির উপর বসা ও ঘরের মধ্যের রুমে মায়ের পাশে ঘুমালেও বারান্দায় তার মৃতদেহ ছাড়াও বারান্দা থেকে বাহিরে যাওয়ার দরজাও সম্পূর্ন খোলা ছিল।
স্থানীয় এক ইউপি সদস্য ও দায়িত্বশীল কয়েকজন বাসিন্দা জানায়, দীর্ঘ দুই বছর পূর্বে সুগন্ধিয়া গ্রামের মোঃ নুর হোসেনের পুুত্র মোঃ রাসেলের

সাথে আরিফার অমতে তার বাবা-মা বিবাহ দেয়। কিছু দিন সংসার করার পর আরিফার সাথে বনিবনা না হওয়ায় স্বামী রাসেলকে ডিভোর্স দিয়ে পিত্রালয়ে চলে আসেন। এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত মেধাবী ছাত্রী আরিফা বিনয়কাঠি শেরে বাংলা ফজলুল হক ডিগ্রি কলেজে এইচ এসসি প্রথম বর্ষে ভর্তি হয়ে পড়পশুনা শুরু করে।
তারা আরো জানায়, এঅবস্থায় ডিভিার্স দেয়ার বদলা নিতে প্রাক্তন স্বামী রাসেল তার সহযোগীদের নিয়ে কলেজে যাতায়াতের পথে আরিফাকে প্রায়শই উত্ত্যক্ত করতে শুরু করে। বহু প্রচেষ্টার পর আরিফা কিছুটা নমনীয় হলে তাদের মধ্যে প্রায়ই মোবাইলে কথাবার্তা চলতে থাকে। ঘটনার রাতে আরিফা তাঁর মায়ের সাথে মধ্যের ঘরে ঘুমিয়ে পড়লে ডিভোর্সি স্বামী রাসেল মোবাইল ফোনের মাধ্যমে তাকে ডেকে ঘরের বাহিরে আনে। এসময় রাসেল ও তার কয়েক সহযোগী আরিফাকে বাগানে নিয়ে গনধর্ষনের পর ঘটনা ধামাচাপা দিতে তাকে গলাটিপে হত্যা করে। এরপর আরিফার মৃতদেহ এনে তাদের বসত ঘরের বারান্দায় গলায় দড়ি বেধে আড়ার সাথে বেধে আত্মহত্যার নাটক সাজিয়ে ও বারান্দার দরজা খুলে পালিয়ে যায়।
এ ব্যাপারে ঝালকাঠি থানার ডিউটি অফিসার জানায়, কলেজ ছাত্রী হত্যার ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা দায়ের করে ময়না তদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। ময়না তদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার পর আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>