ঝালকাঠিতে গৃহবধুকে হত্যা চেষ্টা

জুন ০৭ ২০১৭, ২৩:৪৫

ঝালকাঠি প্রতিনিধি: ঝালকাঠিতে হত্যার উদ্দেশ্যে এক গৃহবধুকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর জখম করেছে শ্বশুর বাড়ির লোকজন। মঙ্গলবার রাতে সদর উপজেলার ধানসিড়ি ইউনিয়নের দেউলকাঠি গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। আহত গৃহবধু মুক্তা বেগমকে (৩০) ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মুক্তার পরিবারের লোকজন জানান, পারিবারিক কলহের জের ধরে মুক্তার স্বামী মিজু খান ঢাকায় অবস্থান করার সুযোগে মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর তার ভাসুর দুলাল খান, নজরুল খান, সিরাজ খান, আকবর খান, আকবরের স্ত্রী মাহিনুর বেগম ও সিরাজের স্ত্রী মনুজা বেগম মুক্তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম

করে।

স্থানীয়দের মাধ্যমে মুক্তার মা সাফিয়া বেগম ও খালা গোলেনুর বেগম খবর পেয়ে মেয়েকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিতে চাইলে মুক্তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন গাড়ি আটকে রাখে। পরে স্থানীয়দের সহয়তায় তাকে রাত সাড়ে ৮টায় হাসপাতালে আনা হয়।

সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক মো. রাকিব রহমান জানান, মুক্তা বেগমের মাথায় ধারালো অস্ত্রের গুরুতর আঘাত রয়েছে, তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

ঝালকাঠি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. তাজুল ইসলাম জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। নির্যাতিতার পরিবারের অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Facebook Comments