ঝালকাঠিতে নিখোঁজের ৩ দিন পর স্কুলছাত্রের মৃতদেহ উদ্ধার

আপডেট : July, 29, 2017, 10:28 pm

ঝালকাঠি প্রতিনিধি: কাঠালিয়া উপজেলার তালগাছিয়া গ্রামের রহস্যজনক ভাবে নিখোঁজ নবম শ্রেনীর ছাত্র ওবায়দুল হকের মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য শনিবার ঝালকাঠি হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। নিখোঁজ হওয়ার ৩দিন পর ২৮ জুলাই শুক্রবার সন্ধ্যায় শৌলজালিয়া গ্রামের একটি ফসলের মাঠ থেকে কাঠালিয়া থানা পুলিশ স্কুলছাত্র ওবায়দুলের (১৪) মৃতদেহ উদ্ধার করে। ময়না তদন্ত শেষে নিহতের মৃতদেহ শনিবার বিকালে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
নিহতের পরিবার ও স্থানীয় সূত্র জানায়, তালগাছিয়া গ্রামের বাদল হাওলাদারের ছেলে ও সোনারবাংলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর ছাত্র ওবায়দুল হক পাশের গ্রামের নানা বাড়ীতে বেড়াতে যায়। সেখান থেকে গত ২৬জুলাই বুধবার পার্শ্ববর্তী শৌলজালিয়া হক্কোননুর দরবারে অনুষ্ঠিত মাহফিলে আসলে তার এক ভাইর সাথে দেখা হয়। ভাই তাকে এক সাথে বাড়ী ফেরার কথা বললেও ওবায়দুল বাড়ী না আসায় সে নানা বাড়ীতে গেছে বলে বাবা-মা ধারনা করেন।
নিহতের স্বজনরা জানায়,

শুক্রবার সন্ধ্যার পূর্বে স্থানীয় লোকজন মাঠের মধ্যে এক কিশোরের লাশ পড়ে থাকতে দেখে কাঠালিয়া থানা পুলিশের কাছে খবর দেয়। পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে থানায় আনার পর কয়েকজন আত্মীয় থানায় ছুটে এসে উদ্ধারকৃত লাশটি নিখোজ স্কুল ছাত্র ওবায়দুলের বলে শনাক্ত করেন।
তবে স্থানীয় অকিবহল একটি সূত্র জানায়, নিহত স্কুল ছাত্র ওবায়দুল হকের কিছুটা মানষিক সমস্যা ছিল। বিভিন্ন সময় সে বাড়ী থেকে কাউকে কিছু না বলে এদিক সেদিক চলে যেতো আবর এক/দেড় মাস পরে বাড়ীতে ফিরে আসতো। যে কারনে তার মৃত্যুর বিষয়টি তদন্ত না করে কারো কোন মন্তব্য করা ঠিক হবেনা বলে সূত্র জানায়।
এ বিষয়ে কাঠালিয়া থানা অফিসার ইনচার্জ সওকত আনোয়ার জানান, ওবায়দুলের মৃতদেহ উদ্ধার করে থানায় আনার পর একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।শনিবার সকাল ১০ টায় তার মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য ঝালকাঠি মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

Facebook Comments