ঢাকা-বরিশাল নৌরুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ

অক্টোবর ২১ ২০১৭, ২০:২৫

ঢাকা নদীবন্দর থেকে ঢাকা-বরিশাল নৌরুট সহ দেশের সকল রুটের নৌযান চলাচল বন্ধ রয়েছে। আবহাওয়া পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়া পর্যন্ত সদরঘাট থেকে ৪১টি রুটে নৌচলাচল বন্ধের এ নির্দেশ বহাল থাকবে। বর্তমানে সব নদীবন্দরে ২ নম্বর নৌ হুঁশিয়ারি সংকেত জারি রয়েছে।

নৌ নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী পরিচালক মো. নাদিরুজ্জামান  বলেন, নদীবন্দরগুলোতে ২ নম্বর নৌ হুঁশিয়ারি সংকেত অব্যাহত ও দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে ঢাকা নদীবন্দর থেকে সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আবহাওয়া পরিস্থিতি ভালো না হওয়া পর্যন্ত এ নির্দেশ বহাল থাকবে।

এদিকে নৌযান চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় যাত্রীদের টার্মিনাল থেকে ফিরে যেতে হচ্ছে। আবদুল আজিজ আমতলী যাওয়ার জন্য সদরঘাটে এসেছিলেন। কিন্তু লঞ্চ চলাচল বন্ধ থাকায় এখন সড়কপথে যেতে হবে তাঁকে। আজিজ বলেন, ‘আজ সুন্দরবন লঞ্চে বুকিং দিয়েছিলাম। কিন্তু আসার পর শুনলাম লঞ্চ চলবে না। এখন সড়কপথে যাব ভাবছি।’

বরিশালের যাত্রী মেহেরুন্নেসা বেগম বলেন, ‘শুক্রবার বৃষ্টি থাকায় যেতে পারিনি। আজ এসেছিলাম। কিন্তু লঞ্চ না ছাড়ায় টঙ্গীতে আত্মীয়ের বাড়িতে ফিরে যেতে হচ্ছে।’

সুন্দরবন লঞ্চের পরিচালক মো. ঝন্টু মিয়া বলেন, বরিশাল, আমতলী ও পটুয়াখালী রুটে তাঁদের তিনটি ট্রিপ চলার কথা ছিল। কিন্তু দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে সেগুলো বাতিল করা

হয়েছে।

 

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপের ফলে সৃষ্ট বৈরী আবহাওয়ার কারণে বরিশালসহ দক্ষিণাঞ্চলের অভ্যন্তরীণ ও দূরপাল্লার কয়েকটি নৌপথে লঞ্চ চলাচল সাময়িক স্থগিত করেছে অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)। আজ শনিবার দুপুরে এ নির্দেশ দেওয়া হয়।

বিআইডব্লিউটিএর বরিশাল বিভাগীয় কার্যালয়ের নৌ নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগ সূত্র জানিয়েছে, বৈরী আবহাওয়ার কারণে বরিশাল-ভোলা, ইলিশা-মজুচৌধুরিহাট, ভোলা-ঢাকা নৌপথে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। বিআইডব্লিউটিএর বরিশাল বিভাগীয় কার্যালয়ের নৌ নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের উপপরিচালক আজমল হুদা সরকার আজ  এ তথ্য নিশ্চিত করে  বলেন, বৈরী আবহাওয়ার কারণে নদ-নদী উত্তাল থাকায় এ সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

একই সঙ্গে বরগুনা-ঢাকা, বরগুনা-আমতলী পথে ও এই জেলার অভ্যন্তরীণ সব পথে নৌচলাচল বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। বরগুনা নৌবন্দরের বন্দর কর্মকর্তা মামুন-অর-রশিদ বলেন, দুপুর ১২টার পর বিআইডব্লিউটিএর পক্ষ থেকে এ নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

এদিকে গত দুই দিনের মতো শনিবার সকাল থেকেই বরিশালসহ দক্ষিণ উপকূলের সব জায়গায় ঝোড়ো আবহাওয়া ও বর্ষণ অব্যাহত রয়েছে। বরিশাল আবহাওয়া কার্যালয়ের জ্যেষ্ঠ পর্যবেক্ষক মো. আনিসুর রহমান আজ  বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় বরিশালে ১৪৫ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এর মধ্যে আজ সকাল ছয়টা থেকে বেলা তিনটা পর্যন্ত ৪০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

Facebook Comments