তুফান ও রুমকি আবারো রিমান্ডে

আগস্ট ০৪ ২০১৭, ২৩:১০

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ বগুড়ায় মা-মেয়ে নির্যাতনের ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত তুফান সরকার এবং কাউন্সিলর মার্জিয়া হাসান রুমকিকে আবারো দুইদিন করে রিমান্ডের অনুমতি দিয়েছেন আদালত।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বগুড়া সদর থানার পরিদর্শক (অপারেশন) আবুল কালাম আজাদ জানান, দ্বিতীয় দফায় দুই দিনের রিমান্ডে থাকা তুফান সরকার ও তার সহযোগী মুন্না এবং চার দিনের রিমান্ড শেষে কাউন্সিলর রুমকিকে শুক্রবার বিকেলে আদালতে নেয়া হয়। এরমধ্যে মুন্না ঘটনার বর্ণনা দিয়ে স্বীকারোক্তিমূলক জবান বন্দি প্রদান করেছে। ফলে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।
তিনি আরও জানান, অধিকতর তদন্তের স্বার্থে তুফান ও রুমকিকে পুনরায় পাঁচ দিনের রিমান্ডে নেয়ার আবেদন জানানো হলে শুনানি শেষে আদালতের বিচারক অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শ্যাম সুন্দর রায় শুনানি শেষে উভয়কে পুনরায় দুই দিনের রিমান্ডে নেয়ার আদেশ দেন। এর আগে গত
মঙ্গলবার বিকেলে ওই আদালত ঘটনার শিকার শিক্ষার্থীর ২২ ধারায় জবানবন্দি গ্রহণ করেন।
এদিকে, ধর্ষণের শিকার শিক্ষার্থীর মেডিকেল পরীক্ষার ফরেনসিক প্রতিবেদন এখন পুলিশের হাতে পৌঁছেছে। মেডিকেল রিপোর্টে মেয়েটিকে ধর্ষণের আলামত মিলেছে বলে দাবি করেছে পুলিশ।  বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের  একটি মেডিকেল বোর্ড বৃহস্পতিবার রাতে এই রিপোর্ট পুলিশের কাছে দিয়েছে।
প্রসঙ্গত,  ১৭ জুলাই ভালো কলেজে ভর্তির কথা বলে সদ্য মাধ্যমিক পাস করা এক শিক্ষার্থীকে বাসায় এনে ধর্ষণ করেন বগুড়া শহর শ্রমিকলীগের আহ্বায়ক (বর্তমানে বহিষ্কৃত) তুফান সরকার। এরপর শুক্রবার (২৮ জুলাই) বিকেলে তুফানের স্ত্রী আশা, তার বড় বোন বগুড়া পৌরসভার সংরক্ষিত নারী আসনের কাউন্সিলর মার্জিয়া হাসান রুমকি ও তার মা রুমি বেগমসহ তাদের সহযোগীরা কাউন্সিলরের চকসুত্রাপুর এলাকার বাসায় শালিসের নামে  মা-মেয়ের ওপর অমানবিক নির্যাতন করে।
Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>