নগরীতে বেসরকারী শিক্ষক সমিতির বিক্ষোভ

আপডেট : June, 12, 2017, 6:34 pm

বরিশাল বিভাগের ২শত সহ সারাদেশ থেকে যাছাই-বাছাইকৃত করার পরও ১৩শত প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয় করন থেকে বাদ দেয়ার প্রতিবাদে বিক্ষোভ প্রদর্শন করা সহ বিভাগীয় কমিশনারের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্বারকলিপি প্রদান করেছে বরিশাল বিভাগীয় বেসরকারী শিক্ষক সমিতি।

আজ দুপুরে বৃষ্টি মাথায় নিয়ে বরিশাল বিভাগীয় শিক্ষক/শিক্ষিকারা বাদ পড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোকে জাতীয় করনের দাবীতে বরিশাল বিভাগীয় প্রাথমিক শিক্ষা উপ-পরিচালকের অফিসের সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে পরে তারা উপ-পরিচলক সহ বিভাগীয় কমিশনার মোঃ শহিদুজ্জামানের নিকট প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্বাকলিপি প্রদান করে।

উপ-পরিচালকের নিকট স্বারকলিপি প্রদানের পূর্বে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্র রাখেন বরিশাল বিভাগীয় প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির উপদেষ্টা জাহিদুর রহমান,বিভাগীয় সভাপতি মোসাঃ শাহানাজ পারভিন,সাধারন সম্পাদক মোঃ মেহেদী হাসান,পটুয়াখালী শিক্ষক সমিতির যুগ্ন আহবায়ক মোঃ মোসারেফ,বরগুনার

খন্দকার ওয়াদুদ হোসেন,ঝালকাঠীর ত্র.কে.ত্রম মামুন হোসাইন,পিরোজপুরের মোঃ আল মামুন ও নাজিরপুরের মোঃ আল মামুন প্রমুখ।

বরিশাল প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দরা বলেন বাংলাদেশ সরকারের প্রাথমিক ও গনশিক্ষা মন্ত্রালয়ের প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় ধাপে উপজেলা ও জেলা যাছাই-বাছাই কমিটি সুপারিশকৃত গন শিক্ষা মন্ত্রালয়ে প্রেরন করা হয়।

কেন্দ্রীয় টাস্কফোর্স জাতীয় করন কমিটি সরকারী ভাবে যাছাই-বাছাই করা হলেও এসব বিদ্যালয়গুলোকে জাতীয় পর্যায়ে না নিয়ে আসার ফলে বরিশাল বিভাগ সহ সারাদেশে ১৩শত প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয় করন থেকে বঞ্চিত হয়।

তাই সরকার ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়নকল্পে কর্মরত শিক্ষকদের বেকারত্ব দূরীকরনের স্বার্থে বাদ পড়া বিদ্যালয়গুলোকে অভিলম্বে জাতীয় করনের জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন বরিশাল বিভাগীয় প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি।

Facebook Comments