নগরীর জিলা স্কুলের সামনে ছাত্রদের সশস্ত্র হামলা!

এপ্রিল ০৫ ২০১৭, ২২:৫০

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ মডেল স্কুল এন্ড কলেজের এক ছাত্রকে কুপিয়ে জখম করার জেরে নগরীর ব্রাউনকম্পাউন্ড ও এর আশপাশের বেশ কয়েকটি বসতঘরে সশস্ত্র হামলা চালিয়েছে প্রতিপক্ষরা। হামলার সময় ঘর থেকে বের হওয়া দু,মহিলাকে মারধর করা হয়। হামলার পূর্বে তারা জিলা স্কুলের সামনে নুরে আলম (৩০) নামে এক যুবককে কুপিয়ে জখম করেছে। নুরে আলম নগরীর টাউন হলের সামনে মামুন মাইক সার্ভিসের দোকানের একজন কর্মচারী এবং ভাটিখানা এলাকার আব্দুল জলিলের ছেলে।প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায় হামলাকারীরা সবাই নগরীর মডেল স্কুল এন্ড কলেজ, বিএম স্কুল ও একে স্কুলের ছাত্র। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ বালা ও সৌরভ নামে দু,জনকে আটক করেছে। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে আগরপুর রোড থেকে একটি ধারালো ছুরি উদ্ধার করেছে।
প্রত্যক্ষদর্শী একাধিক সূত্র জানায়, বুধবার (০৫ এপ্রিল ২০১৭) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে যখন প্রচন্ড ঝড় ও বৃষ্টি শুরু হয় তখন ২০/২৫ জন স্কুলছাত্র দেশীয় ধারালো অস্ত্র হাতে জিলা স্কুলের সামনে থেকে সদর রোডের দিকে যাচ্ছিলো। এ সময় স্কুলের মূল গেটের সামনে দাঁড়িয়ে থাকা মামুন মাইক সার্ভিসের কর্মী নুরে আলমকে কুপিয়ে জখম করে বখাটেরা।
আহত নুরে আলম জানিয়েছেন বৃহস্পতিবার জিলা স্কুলের একটি অনুষ্ঠান ছিলো। ওই অনুষ্ঠানের মাইক নিয়ে সন্ধ্যায় স্কুলে আসেন তিনি। স্কুলের গেট বন্ধ থাকায় তিনি বাইরে দাঁড়িয়েছিলেন। এসময় ২০/২৫ জন কিশোর রাতের অন্ধকারে তার উপরে হামলা চালায়। তাদের প্রত্যেকের হাতে ছিলো ধারালো অস্ত্র। তবে নুরে আলম অন্ধকারে কাউকে চিনতে পারেনি।
এর পর হামলাকারীরা নগরীর ব্রাউনকম্পাউন্ড থেকে প্রবেশ করে মহানগর যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক কামরুল

 

হাসান রতনের বসতঘরসহ বেশ কয়েকটি ঘরে ভাংচুর চালায়। সেখান থেকে পরেশসাগর মাঠের পেছনের গলিতে ঢুকে প্রথমে স্থানীয়

সুমনদের বাসায় ভাংচুর চালিয়ে ঘরের জানালার সকল গ্লাস ভাংচুর করে। পুলিশ বলছে হামলাকারীরা ১৫/২০টি ঘরের জানালা ও গ্লাস ভাংচুর করে। এসময় এলাকায় আতংকের সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বালা ও সৌরভকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। সূত্র বলছে উদয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র ও মডেল স্কুল এন্ড কলেজের ছাত্রদের সাথে পুর্ব বিরোধের জেরে এ ঘটনা ঘটেছে।
এ ব্যাপারে উদয়র মাধ্যামিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ব্রাদার আলবার্ট রতœ জানান, হামলার ব্যাপারে আমি আসলে কিছু জানিনা। তবে দুপুর একটার সময় যখন স্কুল ছুটি হয় তখন আমাকে পিয়ন এসে জানায় স্কুলের সামনে বাইরের অনেক ছেলেরা অবস্থান করছে। শুনেছি কারা যেন মডেল স্কুল এন্ড কলেজের এক ছাত্রকে কুপিয়ে জখম করেছে। এর জের ধরে এ হামলা হয়েছে কিনা আমি নিশ্চিত না।
ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী কোতয়ালী থানার সেকেন্ড অফিসার আবু তাহের জানান, হামলাকারীরা এলাকার প্রায় ১৫/২০টি ঘর ভাংচুর ও এক যুবককে কুপিয়ে জখম করেছে। আমরা বালা ও সৌরভ নামে দু,জনকে আটক করেছি। বাকীদের ধরার চেষ্টা চলছে। আটককৃতদের মধ্যে সৌরভ একে স্কুলের ছাত্র ও বালা বিএম স্কুলের ছাত্র বলে পুলিশকে জানিয়েছে।
জিলা স্কুলের প্রধান শিক্ষক সাবিনা ইয়াসমিন জানান, আমি শুনেছি স্কুলের সামনে একজনকে কারা যেন কুপিয়েছে। তবে কি কারনে কারা এ ধরনের হামলা করলো এখনো জানতে পারিনি।
নগরীর ব্রাউনকম্পাউন্ড এলাকার বাসীন্দা ও মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক শাহিন সিকদার জানান, হামলাকারীরা এলোপাথাড়ি বাড়ীঘরে ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও ভাংচুর চালায়। প্রতিবাদ করতে গেলে দু,জন মহিলাকে ঘর থেকে বের করে মারধর করা হয়। তারা এলাকায় ভীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করে। তবে হামলার কারন সম্পর্কে আমরাও কিছু জানিনা।

সূত্রঃসাউথ ভয়েস

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>