নারী বিশ্বকাপের সেরা একাদশের অধিনায়ক মিতালি

আপডেট : July, 25, 2017, 10:50 am

স্পোর্টস ডেস্কঃ নারী বিশ্বকাপ ক্রিকেটের ১১তম আসরের পর্দা নেমেছে রবিবার রাতে। এরপরই নারী বিশ্বকাপের সেরা একাদশ ঘোষণা করলো ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। সেরা একাদশের অধিনায়ক ভারতের মিতালি রাজ।

পাঁচ সদস্য দ্বারা নির্বাচিত হয়েছে এই দলটি। আইসিসি’র জেনারেল ম্যানেজার ও ইভেন্ট টেকনিক্যাল কমিটির চেয়ারম্যান জিওফ অ্যালার্ডিচ, ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক পেসার ইয়ান বিশপ, ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক চার্লোাটি এডওয়ার্ডস, ভারতের সাবেক খেলোয়াড় বর্তমানে সাংবাদিক স্নেহোল প্রধান ও অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অলরাউন্ডার লিসা স্তলেকার।

একাদশে ইংল্যান্ডের সর্বোচ্চ চারজন, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার তিনজন করে এবং অস্ট্রেলিয়ার একজন খেলোয়াড় রয়েছেন। ইংল্যান্ড স্কোয়াড থেকে দ্বাদশ খেলোয়াড়ও রাখা হয়েছে।

হায়দ্রাবাদের মিতালি এবারের আসরে সর্বমোট ৪০৯ রান করেছেন। যা টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্কোর। তার ব্যাটিং গুণ ও অধিনায়কত্বের দৃঢ়তায় দ্বিতীয়বারের মত নারী বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠে ভারত। কিন্তু লর্ডসের ফাইনালে ব্যাট হাতে ব্যর্থ হন তিনি। তাই দলও হারে মাত্র ৯ রানে। এ ম্যাচে মিতালির ব্যাট থেকে এসেছে ১৭ রান।

কোয়ার্টার ফাইনালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ১০৯ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন মিতালি। ওই ম্যাচে ১৮৬ রানের বড় ব্যবধানে জয় পায় ভারত। সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৩৬ রান করেন র‌্যাংকিং-এ দ্বিতীয় স্থানে থাকা মিতালি।

সেরা একাদশের ওপেনার হিসেবে জায়গা পেয়েছেন ইংল্যান্ডের তামসিন বিউমাউন্ট ও দক্ষিণ আফ্রিকার লওড়া ওলভারডট। এবারের আসরে বিউমাউন্ট ৪১০ রান ও ওলভারডট ৩২৪ রান করেন।

তিন নম্বরে রাখা হয়েছে মিতালিকে। তারপরই

পরের তিনটি স্থানে আছেন অস্ট্রেলিয়ার এলিস পেরি, ইংল্যান্ডের উইকেটরক্ষক সারা টেইলর ও ভারতের হারমানপ্রিত কাউর।

পেরি ৪০৪ রানের পাশাপাশি বল হাতে ৯ উইকেট শিকার করেন। টেইলের ব্যাট থেকে আসে ৩৯৬ রান। উইকেটের পেছনে চারটি ক্যাচ ও দু’টি স্টাম্পিংও করেন তিনি।

কাউর ব্যাট হাতে ৩৫৯ রান ও বল হাতে ৫ উইকেট নিয়েছেন। সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অপরাজিত ১৭১ রান করেছিলেন তিনি। যেটি এবারের আসরের অন্যতম সেরা ইনিংস।

এছাড়া ভারতের অন্য খেলোয়াড় হলেন দিপ্তি শর্মা। ১২ উইকেট শিকারের পাশাপাশি টুর্নামেন্টে তার রান ২১৬।

বোলারদের হিসেবে একাদশে আছেন দক্ষিণ আফ্রিকার ডান-হাতি মিডিয়াম পেসার মারিজান ক্যাপ ও ডান-হাতি লেগ স্পিনার ড্যান ভ্যান নিকার্ক এবং ইংল্যান্ডের ডান-হাতি মিডিয়াম পেসার আনিয়া শ্রুবসোল ও বা-হাতি অর্থোডক্স অ্যালেক্স হার্টলি।

কাপ ১৩ উইকেট, নির্কাক ৯৯ রান ও ১৫ উইকেট, শ্রুবসোল ১২ উইকেট এবং হার্টলি ১০ উইকেট নেন। টুর্নামেন্টের ফাইনালে শ্রুবসোল ৪৬ রানে ৬ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা হন।

দ্বাদশ খেলোয়াড় হিসেবে থাকা নাতালি শিভার ৩৬৯ রান ও ৭ উইকেট শিকার করেছেন।

আইসিসি’র পছন্দের সেরা নারী বিশ্বকাপ একাদশ : তামসিন বিউমাউন্ট (ইংল্যান্ড), লওড়া ওলভারডট (দক্ষিণ আফ্রিকা), মিথালি রাজ (ভারত), এলিস পেরি (অস্ট্রেলিয়া), সারা টেইলর (ইংল্যান্ড), হারমানপ্রিত কাউর (ভারত), দিপ্তি শর্মা (ভারত), মারিজান ক্যাপ (দক্ষিণ আফ্রিকা), ড্যান ভ্যান নিকার্ক (দক্ষিণ আফ্রিকা), আনিয়া শ্রুবসোল (ইংল্যান্ড), অ্যালেক্স হার্টলি (ইংল্যান্ড)।
দ্বাদশ খেলোয়াড় : নাতালি শিভার (ইংল্যান্ড)।

Facebook Comments