নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে আজ মাঠে মাশরাফি

মে ১৭ ২০১৭, ০৯:৫৩

অনিশ্চয়তার ক্রিকেট খেলতে আয়ারল্যান্ড যাওয়া বাংলাদেশ দলকে সেখানকার আবহাওয়ার অনিশ্চিত চরিত্রও কম কাবু করছে না। বৃষ্টি একদিন ম্যাচ ভাসিয়ে নেয় তো আরেকদিন অনুশীলন। এতে করে ১ জুন থেকে ইংল্যান্ডে শুরু হতে যাওয়া চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি সামনে রেখে প্রস্তুতিও বিঘ্নিত হচ্ছে যথেষ্ট।

তাই বিরক্তি এসে যাওয়াও অস্বাভাবিক নয়। গতকাল মঙ্গলবার মাশরাফি বিন মর্তুজাকে এ জন্যই বলতে শোনা গেল, ‘এখানে কয়দিন থেকে বুঝলাম, আবহাওয়ার ঠিক-ঠিকানাই নেই কোনো। এই জোরে বাতাস বইছে তো একটু পরই আবার বৃষ্টি। কিছুক্ষণ পরই আবার রোদ উঠে যাচ্ছে। ’ কিন্তু এভাবে চলতে থাকলে তো চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আগে ম্যাচ প্রস্তুতির ব্যাপক ঘাটতিও থেকে যাবে। মাশরাফির কণ্ঠে নিরুপদ্রব ম্যাচ প্রস্তুতির আকুতি ঝরে পড়াও তাই অপ্রত্যাশিত নয়, ‘ম্যাচ খেলাটা আমাদের জন্য খুব জরুরি। ’

জরুরি সেই প্রয়োজন আজ মিটবে বলেও আশা তাঁর। নিজেদের প্রথম ম্যাচে আয়ারল্যান্ডকে হারিয়ে শুভ সূচনা করা ত্রিদেশীয় সিরিজের তৃতীয় দল নিউজিল্যান্ড আজ ডাবলিনের ক্লনটার্ফ ক্রিকেট ক্লাব মাঠে মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশের। স্থানীয় সময় সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩টা ৪৫ মিনিটে) শুরু হবে ম্যাচ। এই ম্যাচ দিয়েই আবার ফিরছেন অধিনায়ক মাশরাফিও। শ্রীলঙ্কা সফরে স্লো ওভার রেটের জন্য পাওয়া তাঁর এক ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হয় আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে চলতি ত্রিদেশীয় সিরিজের উদ্বোধনী ম্যাচে। সেটি শেষে তাঁর ফেরার ম্যাচেও জেতারই লক্ষ্য মাশরাফির, ‘প্রথম টার্গেট অবশ্যই ম্যাচটি জিততে চাই। এই কন্ডিশনে সব সুযোগ-সুবিধাই হয়ত আমরা চাহিদামতো পাইনি। তার পরও সীমাবদ্ধতার মধ্যে থেকেই আমরা যথাসাধ্য প্রস্তুতি নেওয়ার চেষ্টা করেছি। ’

আগের দিন বৃষ্টির কারণ আউটডোর অনুশীলন বাতিল করা

হলেও গতকাল ক্লনটার্ফ ক্রিকেট ক্লাব মাঠে পুরোদমেই অনুশীলন করা মাশরাফিরা অবশ্য কিছুতেই এই নিউজিল্যান্ডকে খাটো করে দেখতে চাইলেন না। বেশ কয়েকজন শীর্ষ ক্রিকেটার আইপিএলে থাকায় তাঁদের ছাড়াই দল গড়েছে কিউইরা। এই দলকে দ্বিতীয় সারির নিউজিল্যান্ডও বলা হচ্ছে। কিন্তু মাশরাফির মুখে শোনা গেল অন্য কথাই, ‘নিউজিল্যান্ড অবশ্যই ভালো এবং পেশাদার দল। বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়েও খুব ভালো অবস্থানে আছে। যদিও দু-তিনজন শীর্ষ খেলোয়াড় হয়ত নেই। তবে ওদের সঙ্গে খেলা শেষ সিরিজে যাঁরা খেলেছেন, তাঁদের বেশির ভাগ খেলোয়াড়ই কিন্তু এই সিরিজের দলে আছেন। এমনকি রস টেলরও তো আছেন। ’ এই নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে অধিনায়ক তেমন ব্যাটিংই আশা করছেন, যে ব্যাটিং আইরিশদের বিপক্ষে করেছিলেন তামিম ইকবাল ও মাহমুদ উল্লাহ। সে দিন ৭০ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বসা দলকে বড় কিছুর স্বপ্নই দেখাচ্ছিল ওই দুজনের জুটি। অবশ্য যেরকম কন্ডিশনে খেলা হচ্ছে, শুরুর বিপর্যয় হতে পারে বলেই মনে করেন মাশরাফি, ‘তামিম ও রিয়াদ ওদের অভিজ্ঞতার মূল্য বুঝিয়েছে। দ্রুত কিছু উইকেট পড়ার পর ওরা দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছে। আর এসব কন্ডিশনে দ্রুত ২/৩ উইকেট পড়ে যেতেই পারে। মনে হচ্ছে দ্বিতীয় ম্যাচেও উইকেট একই রকম হবে। তবে এসব উইকেটের সুবিধা হল সেট হতে পারলে ২৮০ থেকে ৩০০ রান করা সব সময়ই সম্ভব। আগের ম্যাচের সঙ্গে এই ম্যাচের উইকেটের পার্থক্য কেমন, তার ওপর নির্ভর করছে অনেক কিছু। আমাদের লক্ষ্য বড় স্কোর গড়ারই। ’

আইরিশদের বিপক্ষেও সেই পথেই ছিল বাংলাদেশ। কিন্তু আবহাওয়ার অনিশ্চিত চরিত্রের জন্য সেদিন ভুগতে হয়েছে। আজ আবার সেই ভোগান্তি কিছুতেই চান না মাশরাফিরা।

সূত্রঃ কালের কন্ঠ

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>