পাকিস্তানে সহিংসতায় নিহত ৫৪

জুন ২৪ ২০১৭, ১৪:৩৫

পাকিস্তানে বেসামরিক নাগরিক ও নিরাপত্তাবাহিনীকে লক্ষ্য করে বোমা হামলায় কমপক্ষে ৫৪ জন নিহত হয়েছে। শুক্রবার কোয়েটা ও পারাচিনগরে এই হামলায় আহত হয়েছে ১২০ জন।
পারাচিনগরে ৪১ জন নিহত হয়েছে, এখানে প্রথম হামলার পরে উদ্ধারকর্ম পরিচালনার সময়ে দ্বিতীয়বার হামলা করা হয়। এখানে আহত হয় ১০০ জন। এদিকে কোয়েটার হামলায় নিহত হয় ১৩ জন, আহত ২০ জন। পারাচিনগরের হামলার দায় কেউ স্বীকার করেনি, তবে তেহরিক ই তালেবান পাকিস্তান সংশ্লিষ্ট জামাত উল আহরার কোয়েটার হামলার দায় স্বীকার করেছে।
পারাচিনগরের হামলার প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, তুরি মার্কেটে ঈদের শপিংয়ে আসা মানুষকে লক্ষ্য করে প্রথম হামলা চালানো হয়। ঘটনাস্থলে আহত মানুষদের সহায়তা করতে মানুষ দৌড়ে গেলে সেখানে আরো বড় বিস্ফোরণ হয়।
একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, সেখানে ৪১ জন নিহত ও ১০০ জন আহত হয়েছে। তবে পারাচিনগর এজেন্সি হেডকোয়ার্টার হাসপাতালের মেডিকেল সুপারিটেনডেন্ট ডা. সাবির হুসেইন ৩১ জনের মৃত্যুর কথা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন ১১ জন গুরুতর আহত ব্যক্তিকে হেলিকপ্টারে করে পেশওয়ারে নিয়েছে সেনাবাহিনী। আরো ৮৫ জনকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
এদিকে কোয়েটায় বেলুচিস্তানের আইজিপির কার্যালয়ের সামনে শুহাদা চকে আত্মঘাতীয় হাসলায় ৭ পুলিশ সহ ১৩ জন নিহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে জামিয়াত উলেমা-ই-ইসলাম এর এক নেতাও রয়েছে। কোয়েটা বেসামরিক হাসপাতালের মুখপাত্র ওয়াসিম বেগ বলেন, আমরা ১৩টি মৃতদেহ ও ২০ জন আহত ব্যক্তি পেয়েছি। আহতদের মধ্যে ৯ জন পুলিশ, সেনাবাহিনীর ৪ জন রয়েছে। এদের মধ্যে ৫ জনের অবস্থা গুরুতর। ডন।
Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>