পিরোজপুরে ছাত্র হত্যায় দুই ভাইয়ের ফাঁসি

পিরোজপুর প্রতিনিধিঃ পিরোজপুরে স্কুলছাত্র সাদমান সাকিব প্রিন্স হত্যা মামলায় দুই ভাইকে ফাঁসির দণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা এবং তিনটি ধারায় আরও সাত বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

এদিকে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদের বাবা শফিকুল ইসলামকে (৪৮) বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে।

বুধবার পিরোজপুর জেলা ও দায়রা জজ মো. গোলাম কিবরিয়া এ রায় ঘোষনা করেন।

ফাঁসি দণ্ডপ্রাপ্ত দুই ভাই হলেন- নাফিজ হাসান নাহিদ (১৯) ও নাজমুল হাসান নাঈম।

আদালতে নাফিজ হাসান নাহিদ উপস্থিত থাকলেও তার বড় ভাই নাজমুল হাসান নাঈম পলাতক রয়েছেন।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন পিপি খান মো. আলাউদ্দিন এবং আসামি পক্ষে ছিলেন সিরাজুল ইসলাম।

খান মো. আলাউদ্দিন জানান,

প্রিন্স পিরোজপুর শহরের সিআই পাড়ার সরদার জাকির হোসেন লিটনের ছেলে এবং পিরোজপুর ভকেশনাল ট্রেনিং স্কুলের নবম শ্রেণীর ছাত্র ছিল।

তিনি জানান, ২০১৩ সালের ২৯ আগস্ট ক্রিকেট খেলা নিয়ে প্রিন্সের সঙ্গে প্রতিবেশী নাহিদ ও নাইমের সঙ্গে বিরোধ বাধে। একপর্যায় বাড়িতে আটকে রেখে মারপিট করে দুই ভাই। এতে প্রিন্স মারা যায়। একদিন পর প্রিন্সের লাশ কাঠের ফ্রেমের সঙ্গে ইট বেঁধে পুকুরে ডুবিয়ে রাখে।

এর দুই দিন পর স্থানীয় রায়বাহাদুর পুকুরে তার ভাসমান লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় প্রিন্সের বাবা জাকির হোসেন লিটন ওই বছরের সেপ্টেম্বর মাসে সদর থানায় দুই ভাই নাহিদ ও নাইম এবং তাদের বাবা পিতা শফিকুল ইসলামকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>