ফের আদালতে আটকে গেল ট্রাম্পের আদেশ

মে ২৬ ২০১৭, ১৭:০৪

যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণে ছয়টি মুসলিম দেশের নাগরিকদের ওপর জারি করা ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাহী আদেশ আবারও আটকে দিয়েছেন আদালত।

ভার্জিনিয়ার ফেডারেল আপিল আদালত বৃহস্পতিবার এক রায়ে ট্রাম্পের ওই আদেশ পুনর্বহাল করার আবেদন নাকচ করে দিয়েছেন। খবর সিএনএন’র।

আদালত বলেছেন, ট্রাম্পের আদেশ মুসলিমদের প্রতি বৈষম্যমূলক। ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার ঘোষণায় জাতীয় নিরাপত্তার যে যুক্তি ট্রাম্প প্রশাসন দেখিয়েছে, তা অত্যন্ত ধোঁয়াটে।

একটি ধর্মের নাগরিকদের প্রতি ট্রাম্পের বিদ্বেষের বিষয়টি এ আদেশে স্পষ্ট। নির্বাহী আদেশের পক্ষে যুক্তি দেখিয়ে ট্রাম্প প্রশাসনের পক্ষে বলা হয়েছিল, জাতীয় নিরাপত্তা প্রশ্নে প্রেসিডেন্টের নিরঙ্কুশ ক্ষমতা রয়েছে।

বিচারকদের মতামত ব্যাখ্যা করে চতুর্থ সার্কিট আপিল আদালতের বিচারক রজার গ্রেগরি বলেন, জাতীয় নিরাপত্তার খাতিরে বিদেশি নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে

বাধা দেয়ার ক্ষমতা প্রেসিডেন্টের আছে। কিন্তু কংগ্রেস প্রদত্ত ওই ক্ষমতা মোটেই চূড়ান্ত বা নিরঙ্কুশ নয়।

প্রেসিডেন্ট চাইলেই যা খুশি তা করতে পারেন না। তার সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করা যাবে না, তাও গ্রহণযোগ্য নয়। বিশেষত যখন প্রেসিডেন্টের সিদ্ধান্তের ফলে বিভিন্ন ব্যক্তির অপূরণীয় ক্ষতির সম্মুখীন হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

আদালতের ১৩ বিচারকের মধ্যে ১০ জনই ট্রাম্পের নির্বাহী আদেশের বিরুদ্ধে রায় দেন। এর আগে মেরিল্যান্ডের একটি ফেডারেল আদালত ট্রাম্পের নির্বাহী আদেশের বাস্তবায়ন স্থগিত ঘোষণা করেছিলেন।

এই রায়ের বিরুদ্ধে ট্রাম্প প্রশাসন ভার্জিনিয়ার আপিল আদালতের হস্তক্ষেপ প্রার্থনা করেন। বৃহস্পতিবারের রায়ের ফলে মেরিল্যান্ডের আদালতের সিদ্ধান্তই অপরিবর্তিত রইল।

আইনমন্ত্রী জেফ সেশনস জানিয়েছেন, ট্রাম্প প্রশাসন এখন এ বিষয়ে সুপ্রিমকোর্টের দ্বারস্থ হবে।

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>