বরিশালের সীমা হত্যার বিচার চেয়ে স্মারকলিপি

জুলাই ৩০ ২০১৭, ২২:২৯

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ যৌতুকের দাবীতে অমানুষিক নির্যাতনের পর হত্যা করা গৃহবধূ সীমা রানীর হত্যাকারীদের বিচারের দাবীতে রবিবার দুপুরে নগরীতে বিক্ষোভ শেষে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।
জেলা মহিলা পরিষদের সভাপতি রাবেয়া খাতুন ও সাধারণ সম্পাদক পুষ্প রানী চক্রবর্ত্তীর নেতৃত্বে পরিষদের নেতৃবৃন্দরা নবনিযুক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ হাবিবুর রহমানের কাছে এ স্মারকলিপি পেশ করেন। এসময় জেলা প্রশাসক মহিলা পরিষদের জেলা শাখার নেতৃবৃন্দদের দাবির বিষয়টি দ্রুত সংশ্লিষ্ট দপ্তরে প্রেরণের আশ্বাস দিয়েছেন।
পরিষদের সাধারণ সম্পাদক পুস্প রানী চক্রবর্ত্তী জানান, গত পাঁচ বছর আগে নগরীর ওয়াপদা কলোনীর বাসিন্দা দুলাল মালির কন্যা সীমা রানীর সাথে পটুয়াখালীর গলাচিপার কলাগাছিয়া গ্রামের বাসিন্দা গোপাল চন্দ্র মালির সামাজিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর তারা কেরানীগঞ্জে বসবাস করে আসছিলো। বিয়ের পর থেকে যৌতুকের দাবিতে সীমাকে শারিরিক নির্যাতন করা

হতো। নির্যাতন থেকে রক্ষা পেতে সীমার পিতা বিভিন্ন সময়ে ২ লাখ ৮০ হাজার টাকা পরিশোধ করেন। গত ১৬ জুন স্বামী গোপাল চন্দ্র মালি আরও এক লাখ টাকা যৌতুক দাবী করে। বাবার বাড়ি থেকে টাকা আনতে অপারগতা প্রকাশ করায় ওইদিন রাতে নির্যাতন করে সীমাকে হত্যা করে স্বামী ও তার স্বজনরা।
এ ঘটনায় ১৯ জুন সীমার মা আরতী রানী বাদি হয়ে গোপাল চন্দ্র মালি, তার বাবা সুনীল চন্দ্র মালি, মা রেনু মালি, বোন রিনা রানী মালি, তার জামাতা গৌতম চন্দ্র মালি ও কাকা অনিল চন্দ্র মালিকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার পর পুলিশ গোপাল মালি ও রেনু মালিকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে প্রেরণ করলেও অন্য আসামি এবং তাদের ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীরা আত্মগোপনে থেকে মামলা প্রত্যাহারের জন্য বাদিকে নানানভাবে হুমকি অব্যাহত রেখেছে।

 

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>