বরিশালে চাঁদাবাজির ঘটনায় সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে এসআই ক্লোজ!

গৌরনদী প্রতিনিধি: বরিশালে গৌরনদী মডেল থানা পুলিশের কথিত সোর্স হিসেবে পরিচিত লতিফ বেপারীর দাবিকৃত ২ লাখ টাকা চাঁদা না দেওয়ায় সৌদি প্রবাসীর উপর হামলা ঘটনায় গৌরনদী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। থানা পুলিশ সোর্সকে গ্রেপ্তার করে বুধবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠিয়েছে। একই দিনে চাঁদাবাজির ঘটনায় গৌরনদী মডেল থানার এসআই মো. মাজাহারুল ইসলামের সম্পৃক্ততা পাওয়ার অভিযোগে বরিশাল পুলিশ সুপার এস,এম, আকতারুজ্জামানকে মাজাহারুলকে পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়েছে।
মামলা বিবরনে জানা গেছে, উপজেলার দক্ষিণ গোবর্দ্ধন গ্রামের সৌদি প্রবাসী সৈয়দ চুন্নুর কাছে দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে একই গ্রামের লতিফ বেপারী (৩২)। চাঁদা না দেওয়ায় সোমবার সন্ধা সাড়ে ৭টার কথিত পুলিশের সোর্স লতিব

বেপারীসহ ৭ থেকে ৮ জন তার উপর হামলা চালিয়ে বেধড়কভাবে পিটিয়ে সঙ্গে থাকা ৩৫ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেন।এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে প্রবাসীর ভাবি রিমা রহমান বাদি হয়ে লতিফ বেপারীসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে একটি চাঁদাবাজি মামলা দায়ের করেন । পুলিশ লতিফ বেপারীকে গ্রেপ্তার করে বুধবার বরিশাল অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হলে আদালতের বিচারক তাকে জেল হাজতে পাটায়।
গৌরনদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রেজাউল করিম ও গৌরনদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ফিরোজ কবির বুধবার ঘটনাস্থলে সরেজমিনে তদন্ত করে সত্যতা পান এবং চাঁদাবাজির ঘটনার সঙ্গে এসআই মাজাহারুল ইসলামের সম্পৃক্ততা পাওয়ার তাকে বুধবার বিকেলে বরিশাল পুলিশ সুপার এস,এম, আকতারুজ্জামান পুলিশ লাইনে ক্লোাজ করেছে।

 

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>