বরিশালে বিএনপির টার্গেট সাড়ে ৫ লাখ নতুন সদস্য

আপডেট : July, 18, 2017, 11:58 pm

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ বরিশাল জেলা দক্ষিণ ও উত্তর এবং মহানগর বিএনপির সাড়ে ৫ লাখ নতুন সদস্য সংগ্রহের টার্গেট নেয়া হয়েছে। আর টার্গেট পূরণের অভিযান উদ্বোধন করতে আসছেন মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আগামী ২৫ জুলাই মহানগর ও ২৬ জুলাই দক্ষিণ জেলা বিএনপির সদস্য সংগ্রহ অভিযান উদ্বোধন করবেন তিনি। দুই দিনব্যাপী এ অভিযানে বিএনপির তিন শাখার মহানগরীর ৩০ ওয়ার্ড, ৫ পৌরসভার ৪৫ ওয়ার্ড, ১০ উপজেলার ৮৭ ইউনিয়ন থেকে মোট সাড়ে ৫ লাখ সদস্য সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে। তবে এখানকার নেতারা জানিয়েছেন, লক্ষ্যমাত্রা সাড়ে ৫ লাখ নির্ধারণ করে দেয়া হলেও অনেক বেশি সদস্য সংগ্রহ করা হবে। সদস্য সংগ্রহ অভিযান পরিচালনার জন্য কেন্দ্র থেকে জেলা, মহানগর, ওয়ার্ড, উপজেলা এবং ইউনিয়ন বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাদের নিয়ে কমিটি গঠন করে দেয়া হয়েছে। কমিটির নেতাদের তালিকা এসেও পৌঁছেছে।

বরিশাল মহানগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জিয়াউদ্দিন সিকদার জিয়া জানান, ২৫ ও ২৬ জুলাই সদস্য সংগ্রহ অভিযান হবে। নগরীর অশ্বিনী কুমার হলে ২৫ জুলাই মহানগর বিএনপির অভিযানের উদ্বোধন করবেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তার আগমন ও সদস্য সংগ্রহ অভিযান সফল করতে দফায় দফায় প্রস্তুতি সভা হচ্ছে। এ নিয়ে সোমবার দলীয় কার্যালয়ে প্রস্তুতি সভা করেছে মহানগর বিএনপি। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও মহানগরের সভাপতি অ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ার। সভায় সদস্য সংগ্রহ অভিযান সফল করতে বিভিন্ন দিকনির্দেশনা দিয়েছেন তিনি। ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আরও জানান, কেন্দ্রের নির্দেশনা অনুযায়ী বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের ৩০টি ওয়ার্ডের প্রত্যেকটি থেকে সর্বনিন্ম এক হাজার করে মোট ৩০ হাজার সদস্য সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে। তবে আমাদের লক্ষ্য প্রত্যেকটি ওয়ার্ড থেকে দেড় থেকে দুই হাজার করে সদস্য সংগ্রহ করা।

দক্ষিণ জেলা বিএনপির সভাপতি

এবায়দুল হক চান বলেন, সদস্য সংগ্রহ অভিযান সফল করতে আমরা দু’দফায় প্রস্তুতি সভা করেছি। আগামী ২৬ জুলাই দক্ষিণ জেলার সদস্য সংগ্রহ অভিযানেরও উদ্বোধন করবেন মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তবে এখন পর্যন্ত উদ্বোধনের স্থান নির্ধারণ হয়নি। উদ্বোধনের পর থেকে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে দক্ষিণ জেলার আওতাধীন ৫টি উপজেলা এবং ৩টি পৌরসভা এলাকা থেকে সদস্য সংগ্রহ করা হবে। তিনি জানান, কেন্দ্রের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রতিটি ইউনিয়ন ও পৌরসভার ওয়ার্ড পর্যায় থেকে ফরম পূরণের মাধ্যমে সদস্য সংগ্রহ করা হবে। ইউনিয়ন পর্যায়ের প্রত্যেকটি ওয়ার্ড থেকে সর্বনিন্ম ২শ’ এবং পৌরসভার ওয়ার্ড পর্যায় থেকে সর্বনিন্ম ৩শ’ করে সদস্য সংগ্রহ বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। তবে এর বেশি সদস্য সংগ্রহ করতে বাধা না থাকলেও নির্ধারিত সংখ্যার কম সদস্য সংগ্রহ করা যাবে না।

অপরদিকে উত্তর জেলা বিএনপির নেতারা জানান, একই নিয়মে উত্তর জেলার আওতাধীন ৫টি উপজেলা এবং ৩টি পৌরসভার ওয়ার্ড পর্যায় থেকে সদস্য সংগ্রহ করা হবে। এ জন্য তাদের কমিটি কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির বরিশাল বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট বিলকিছ আক্তার জাহান শিরিন বলেন, সদস্য সংগ্রহ কার্যক্রমকে ঘিরে স্থানীয় পর্যায়ে কেন্দ্র থেকে পৃথক কমিটি করে দেয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে কমিটিগুলো স্ব স্ব ইউনিটের সভাপতি-সম্পাদক বরাবরে পৌঁছেছে। এই কমিটি সদস্য সংগ্রহ অভিযান পরিচালনা করবে। এ ছাড়া তারা স্থানীয় পর্যায়ে নির্বাচন কমিশনের কার্যক্রমও মনিটরিং করবে।

তিনি বলেন, মহানগর, জেলা, উপজেলা, পৌরসভা এবং ইউনিয়ন পর্যায়ের জন্য এসব কমিটি করা হয়েছে। ইউনিয়ন কমিটির কার্যক্রম মনিটরিং করবে থানা কমিটি। আবার থানা ও পৌরসভার কমিটি মনিটরিং করবে জেলা কমিটি। এ ছাড়া মহানগরীর ওয়ার্ড পর্যায়ে যে কমিটি গঠন করা হয়েছে তা মনিটরিং করবে মহানগর কমিটি। প্রত্যেকটি ইউনিয়ন, থানা, পৌরসভা এবং জেলা কমিটির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকদের সমন্বয়ে এ কমিটি গঠন হয়েছে।

Facebook Comments