বরিশালে ব্যবসায়ীকে প্রকাশ্যে রাস্তায় পিটিয়ে টাকা ছিনতাই

জুলাই ২২ ২০১৭, ২১:১৩

বাবুগঞ্জ প্রতিনিধিঃ বাবুগঞ্জে এক প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ীকে দিনদুপুরে প্রকাশ্য রাস্তায় পথরোধ করে বেধড়ক মারপিটের পর তার পকেটে থাকা ৪০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে স্থানীয় সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনার প্রতিবাদে পরে অভিযুক্ত ছিনতাইকারীর চাচাকে ধরে গণধোলাই দিয়েছে গ্রামবাসী। পরে তাকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। গতকাল দুপুরে উপজেলার রহমতপুর এলাকার বিমানবন্দর মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী, পুলিশ, স্থানীয় সূত্র, এবং ভুক্তভোগী বাবুগঞ্জ উপজেলার সাতমাইল বাজারের মক্কা ট্রেডার্সের সত্ত্বাধিকারী ও ছাতিয়া গ্রামের রড-সিমেন্ট, পাথর-বালু ব্যবসায়ী মোঃ সাখাওয়াত হোসেন জানান, গতকাল বেলা সাড়ে ১২টার দিকে মানিককাঠি বন্দরে ভেড়া তার পাথরভর্তি জাহাজের লেবার পেমেন্ট দিতে মোটর সাইকেলযোগে যাচ্ছিলেন। এসময় রহমতপুরে বিমানবন্দর মোড় এলাকায় পৌঁছলে স্থানীয় মৎস্যজীবী লীগ নেতা বিপ্লব মুন্সির ভাতিজা শাহিন মুন্সীর নেতৃত্বে ৭/৮ জন সন্ত্রাসী তার মোটসাইকেলের গতিরোধ করে। আগে থেকেই রাস্তার মোড়ে অপেক্ষমান ওই সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা তাকে প্রকাশ্য জনসম্মুখে বেদম মারপিট করে পকেটে থাকা ৪০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। এদিকে এ হামলার খবর ওই ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী সাখাওয়াত হোসেনের গ্রামে পৌঁছলে ছাতিয়া, মেগিয়া, হিজলার পোল ও মোহনগঞ্জ এলাকা থেকে কয়েকশ’ গ্রামবাসী ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। এসময় বিক্ষুব্ধ জনতা অভিযুক্ত শাহিন মুন্সিকে না পেয়ে রহমতপুর ব্রিজে

এসে তার চাচা মৎস্যজীবী লীগ নেতা বিপ্লব মুন্সিকে পেলে তাকে ধরে ব্যাপক গণধোলাই দেয়। খবর পেয়ে বিমানবন্দর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বিপ্লব মুন্সিকে উদ্ধার করে পুলিশ হেফাজতে বরিশাল শেরেবাংলা হাসপাতালে ভর্তি করে। ছিনতাইয়ের শিকার ব্যবসায়ী সাখাওয়াত হোসেন দাবি করেন, পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী শাহিন মুন্সির নেতৃত্বে ওই সন্ত্রাসী হামলার সময় তার দুই চাচা বিপ্লব মুন্সি ও নজরুল মুন্সি ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন। তাদের নির্দেশেই ওই মারপিট ও ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। তবে এসব অভিযোগ সরাসরি অস্বীকার করে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মৎস্যজীবী লীগ নেতা বিপ্লব মুন্সি বলেন, ভাতিজা শাহিনের ওই হামলা কিংবা কারণ সম্পর্কে আমি কিছুই জানি না। নিজে মাছের ব্যবসা করে খাই। কারো সাথেপাছে থাকি না আমি। বিমানবন্দর থানার ওসি মোঃ আনোয়ার হোসেন জানান, শাহিন মুন্সি ও তার দুই চাচাসহ অজ্ঞাত ৭/৮ জনের বিরুদ্ধে পথরোধ করে মারপিট ও ছিনতাইয়ের ঘটনায় থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ব্যবসায়ী সাখাওয়াত হোসেন। শাহিনের বিরুদ্ধে থানায় আরো বেশ কয়েকটি মামলা ও অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে। শাহিনের চাচা বিপ্লব মুন্সিকে ছিনতাই মামলার আসামী করায় তাকে জনরোষ থেকে উদ্ধারের পর পুলিশ হেফাজতে নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>