বরিশালে মধ্যযুগীয় কায়দায় গৃহবধূ নির্যাতন

জুলাই ২৬ ২০১৭, ২০:২১

নিউজ ডেস্কঃ কর্মের সুবাদে  ঢাকায়  থাকার ফলে প্রথম বিয়ের কথা গোপন রেখে সম্পূর্ণ প্রতারনার মাধ্যমে রোজিনা আক্তারকে (২২) দ্বিতীয় বিয়ে করেছিলো মাইনুল বাদশা নামের এক যুবক। সম্প্রতি সময়ে রোজিনাকে ফেলে রেখে আত্মগোপন করে মাইনুল। পরবর্তীতে বৃদ্ধ পিতাকে নিয়ে স্বামীর খোঁজে তার গ্রামের বাড়িতে এসে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের স্বীকার হয়ে এখন হাসপাতালের বেডে কাতরাচ্ছেন রোজিনা। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার সকালে বরিশাল জেলার উজিরপুর উপজেলার শিকারপুর গ্রামে।
হাসপাতালে শষ্যাশয়ী মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার কৈতরা গ্রামের বাসিন্দা জয়নাল মৃধার কন্যা রোজিনা জানায়, কর্মের সুবাদে ঢাকায় থাকার সুবাধে তার সাথে পরিচয় হয় উজিরপুরের ওটরা ইউনিয়নের কেশবকাঠী গ্রামের এনায়েত হোসেনের পুত্র মাইনুল বাদশার। পরিচয়ে সূত্রধরে মাইনুলের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। একপর্যায়ে গত ৮ মে তাকে (রোজিনা) আদালতের মাধ্যমে (কোর্ট ম্যারেজ) বিয়ে করেন। বিয়ের পর তারা দুইজনে ঢাকার ভাড়াটিয়া বাসায় বসবাস করে আসছিলেন। এরইমধ্যে গত দশদিন পূর্বে মাইনুল বাদশা পালিয়ে গ্রামের বাড়িতে চলে আসে।
রোজিনা আরও জানান, তার বৃদ্ধ পিতাকে নিয়ে স্বামী মাইনুলকে খুঁজতে মঙ্গলবার বিকেলে

তার গ্রামের বাড়িতে যাওয়ার পর তিনি জানতে পারেন মাইনুলের প্রথম স্ত্রী রয়েছে। ওই বাড়িতে গিয়ে স্বামী মাইনুলকে খুঁজতে থাকায় ক্ষিপ্ত হয়ে মাইনুলের বাবা এনায়েত হোসেন, মা নারগিস বেগম ও মাইনুলের প্রথম স্ত্রী রিনা বেগম রাতে তাকে (রোজিনা) অমানুষিক নির্যাতন করে। একপর্যায়ে মাইনুল বাদশাকে ছেড়ে দিয়ে চলে যাওয়ার জন্য একটি সাদা ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষর আদায়ের চেষ্টা করা হয়। রোজিনা আরও জানান, সকালে স্থানীয়দের কাছে জানতে পারেন মাইনুল তার প্রথম শশুর বাড়ি শিকারপুরে আত্মগোপন করেছে। পরবর্তীতে সে তার বৃদ্ধ পিতাকে নিয়ে শিকারপুরের মাইনুলের প্রথম শশুর বাড়িতে যাওয়ার পর উল্লেখিতরা সেখানে বসেও তাকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করে তাড়িয়ে দেয়। পরবর্তীতে স্থানীয় এক সংবাদকর্মীর সহায়তায় গুরুতর আহত রোজিনাকে বুধবার বেলা এগারোটার দিকে ইচলাদী বাসষ্ট্যান্ড থেকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।
এ ব্যাপারে উজিরপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ গোলাম সরোয়ার জানান, সংবাদকর্মীদের মাধ্যমে খবর পেয়ে পুলিশ হাসপাতালে গিয়ে নির্যাতিতার বক্তব্য গ্রহণ করেছে। পুরো ঘটনার তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

 

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>