বরিশালে স্বপ্নের ঘোরে সর্পদংশন ৩০ হাজার টাকায় ঝাঁড় ফুক

অক্টোবর ১৩ ২০১৭, ১৯:৩৮

গৌরনদী প্রতিনিধিঃ স্বপ্নের ঘোরে সর্পদংশন করায় রোগীকে সুস্থ্য করার জন্য কথিত ফকিরের বিরুদ্ধে ৩০ হাজার টাকা চুক্তিতে তিনদিন ধরে ঘরের সামনে কলাগাছ পুতে ঢোল পিটিয়ে তন্ত্রমন্ত্র পরে অপচিকিৎসা দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শুক্রবার সকালে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা গেছে ওই ভন্ড ফকিরের কান্ড। ঘটনাটি জেলার গৌরনদী উপজেলার প্রত্যন্ত হাপানিয়া গ্রামের। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ওই গ্রামের সাত্তার খলিফার স্ত্রী দীর্ঘদিন থেকে মাথা ও হাত পায়ের যন্ত্রনায় ভুগছিলেন। অতিসম্প্রতি তিনি তার স্বামীকে জানান, তাকে স্বপ্নের ঘোরে সর্পদংশন করেছে। এ ঘটনায় দিশেহারা হয়ে পরেন সাত্তার খলিফা।

উপায়ন্তুর না পেয়ে তিনি পার্শ্ববর্তী কালকিনি উপজেলার কয়ারিয়া ইউনিয়নের সাহেবরামপুর গ্রামের আব্দুল আলীর পুত্র কথিত গ্রাম্য ওঝা (ফকির) ওলিউজ্জামানের স্মরনাপন্ন হন।

সরলতার সুযোগে সাত্তার খলিফার সাথে ৩০ হাজার টাকার চুক্তিতে গত বুধবার সকাল থেকে শুক্রবার বিকেল পর্যন্ত ঘরের সামনে কলাগাছ পুতে কথিত ফকির ওলিউজ্জামান তার দলবল নিয়ে ঢোল পিটিয়ে তন্ত্রমন্ত্র পরে অপচিকিৎসা শুরু করেন।

অপচিকিৎসার কোন বৈজ্ঞানিক ব্যাখা বা সরকারী কোন অনুমোদন রয়েছে কিনা সে বিষয়ে জানতে চাইলে কথিত চিকিৎসক বিমূর্ষ হয়ে স্বীকার করে বলেন, ওই চিকিৎসার কোন বৈজ্ঞানিক ব্যাখা বা সরকারী অনুমোদন নেই।

 

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>