বরিশালে হত্যার ভয় দেখিয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ!

জুন ০৫ ২০১৭, ১৯:৫৪

মামলা দায়ের

বরিশালের গৌরনদী উপজেলার মাহিলাড়া এ.এন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী (১৪)কে জোরপূর্বক ধর্ষণ করায় ৩ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে। এ ব্যাপারে ধর্ষিতা অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রীর বড় বোন বাদি হয়ে ধর্ষক আলামিন হাওলাদার (২২)সহ ২ জনকে আসামি করে রোববার রাতে গৌরনদী মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছে। ধর্ষিতা অন্তঃসত্ত্বা ছাত্রীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য বরিশাল শেরে-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও ২২ ধারায় জবানবন্দি দেয়ার জন্য বরিশাল অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে গতকাল সোমবার সকালে পাঠানো হয়েছে।
গৌরনদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ফিরোজ কবির জানান, উপজেলার মাহিলাড়া ইউনিয়নের পূর্ব বেজহার গ্রামের সৌদি প্রবাসী বাবুল হাওলাদারের বখাটে পুত্র আলামিন হাওলাদার (২২) ৫/৬ মাস পূর্বে ছাত্রীকে স্কুলে আসা যাওয়া পথে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করতো। তখন স্কুলছাত্রীর মা ও বড়বোন বিষয়টি বখাটে আলামিনের অভিভাবকদের জানান। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে বখাটে আলামিন তার সহযোগীকে নিয়ে বিভিন্ন সময় প্রতিবেশী স্কুলছাত্রী ও তার পরিবারের সদস্যদের জীবননাশেল হুমকি দেয়। গত ২৫ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় স্কুলছাত্রী বখাটের বাড়ির ওপর দিয়ে টিউবওয়েলের পানি আনতে যাবার সময় বখাটে আলামিন তার

হাত থেকে পানির কলসি ফেলে দেয়। ঘরে কোন লোক না থাকার সুযোগে বখাটে আলামিন স্কুলছাত্রীকে টেনে হেঁচড়ে ঘরের ভেতর নিয়ে হত্যার ভয় দেখিয়ে জোরপূর্বক তাকে ধর্ষণ করে। পরবর্তীতে ৮ মার্চ বিকালে বখাটে আলামিন হাওলাদার (২২) একই ভাবে প্রতিবেশী স্কুলছাত্রীকে হত্যার ভয় দেখিয়ে আবার ধর্ষণ করে। লোকলজ্জায় ধর্ষণের বিষয়টি স্কুলছাত্রী কাউকে বলেননি। গত ৩১ মে ছাত্রীর পেটে ব্যথা শুরু হলে বাদিনী তার বোনকে টিএন্ডটি মোড়ে শিকদার ক্লিনিকে নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা করে জানতে পারে তার বোন তিন মাসের অন্তঃসন্ত¡া। একাধিকবার ধর্ষণের ফলে স্কুলছাত্রী তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে। এরপর ধর্ষণের বিষয়টি জানাজানি হয়। এ ব্যাপারে ধর্ষিতা অন্তঃসত্ত্বা ছাত্রীর বড় বোন বাদি হয়ে ধর্ষক আলামিন হাওলাদার (২২) ও তার বন্ধু মহিউদ্দিন হাওলাদার কে আসামি করে রবিবার রাতে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছে। ধর্ষিতা অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য বরিশাল শেরে-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও ২২ ধারায় জবানবন্দি দেয়ার জন্য বরিশাল অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোমবার সকালে পাঠানো হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারের জোর প্রচেষ্টা চলছে বলে ওসি ফিরোজ কবির জানান

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>