বাকেরগঞ্জে বিএনপি নেতাদের গ্রেফতারের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

আপডেট : August, 11, 2017, 10:28 pm

বাকেরগঞ্জ প্রতিনিধি: বরিশালের বাকেরগঞ্জে গতকাল বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার বাংলাবাজার থেকে ৯টি মটর সাইকেলসহ বিএনপি’র ১২ নেতা-কর্মীকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। বিএনপি’র কেন্দ্র ঘোষিত সদস্য সংগ্রহ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে বাকেরগঞ্জের বাংলা বাজার এলাকায় সদস্য সংগ্রহ কার্যক্রম করতে গেলে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

বাকেরগঞ্জ বিএনপি’র সাবেক এমপি আবুল হোসেন ও খলিল শিকদার দু’গ্রুফই সদস্য সংগ্রহ কার্যক্রম করতে গেলে পুলিশ উভয় গ্রুপের লোকদেরকে গ্রেফতার করে। খলিলুর রহমান শিকদার গ্রুফের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ডাঃ শহীদ হাসান, উপজেলা বিএনপি’র প্রস্তাবিত কমিটির সভাপতি ও কলসকাঠী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান শওকত হোসেন হাওলাদার, সাধারণ সম্পাদক শিকদার খলিলুর রহমান, ফরিদপুর ইউনিয়নের বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক মো: কবিরুল ইসলাম সন্যামত, গারুড়িয়া ইউনিয়ন যুবদল সভাপতি তুহিন খান, কামাল ব্যেগ, অলি হাসান গাজী, ইব্রাহীম হাওলাদার ও মো: আসলাম হাওলাদার। আবুল হোসেন খান গ্রুফের উপজেলা বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম ভিপি দুলাল, যুব নেতা এনায়েত হোসেন খান বিপু ও বশির সরদার।

গ্রেফতার হওয়ার সংবাদ বিএনপির নেতা-কর্মীদের মধ্যে ছড়িয়ে পরলে খলিলুর রহমান সিকদার গ্রুপের উপজেলা যুবদল আহবায়ক খবির

উদ্দিন সিকদারের নেতৃত্বে বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয় বিকাল ৬টায় সাংবাদিকদের নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন। এ সময় সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)র প্রাথমিক সদস্য পদ সংগ্রহের কার্যক্রম চলিতেছে। তারই ধারাবাহিকতায় বাকেরগঞ্জ উপজেলাধীন নিয়ামতি ইউনিয়ন শাখার উদ্যোগে ১১ আগষ্ট সকাল ১০ টায় বাংলাবাজার নামক স্থানের উপর উল্লেখিত কর্মসূচির আলোকে একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে ফেরার পথে পাদ্রীশিবপুর ডাক্তারবাড়ি নামক স্থানে বসে উল্লেখিত নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার করা হয়। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই এবং গ্রেফতার হওয়া সকল নেতা-কর্মীর নিঃশর্ত মুক্তির দাবী করছি।

বাকেরগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ আজিজুর রহমান জানায়, অনুমতি না নিয়ে বিএনপি’র এ সকল নেতা-কর্মিরা সদস্য সংগ্রহের নামে প্রকাশ্যে মটর সাইকেল মহরা দিয়ে এলাকায় আতঙ্ক সৃষ্টি করছিল। এলাকায় বিশ্রীঙ্খলা সৃষ্টি হওয়ার আশঙ্কায় তাদেরকে গ্রেফতার কার হয়েছে। ওসি আরও জানান, বিএনপি’র এ সকল কার্যক্রম টের পেয়ে গতরাতে মোবাইল ফোনে তাদেরকে অনুমতি না নিয়ে প্রোগ্রাম করতে বারণ করছিলাম। কিন্তু তারা অনুমতি না নিয়েই সদস্য সংগ্রহের নামে মহরা দিচ্ছিল। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

 

Facebook Comments