বানারীপাড়ায় টেম্পু ষ্ট্যান্ড বহাল রাখার দাবীতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

এপ্রিল ২০ ২০১৭, ১৪:৪৭

বানারীপাড়াঃ বানারীপাড়ায় প্রায় ৫০ বছরের পুরাতন টেম্পু-মাহিন্দ্রা-আলফা ষ্ট্যান্ড বহাল রাখার দাবীতে বন্দর বাজারের ব্যবসায়ী ও ৪ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা মানবন্ধন করেছে।বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় বন্দর বাজারের ব্যবসায়ী ও দুপুর ১টায় বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়,মাহমুদিয়া আলিম মাদ্রাসা ও প্রি-ক্যাডেট স্কুল এবং রেড সান প্রি-ক্যাডেট স্কুলের শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে পৌর শহরের টেম্পু-মাহিন্দ্রা-আলফা ষ্ট্যান্ড থেকে ডাকবাংলো মোড় পর্যন্ত সড়কে পৃথক এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।মানববন্ধনে কয়েক শত ব্যবসায়ী ও শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে।দীর্ঘ এই ৫ দশক ধরে  শ্রমিকের শরীরের ঘামে তীল তীল করে সাঁজানো টেম্পু মাহিন্দ্রা -আলফা ষ্ট্যান্ড অন্যত্র স্থানান্তর করা নিয়ে শ্রমিক অসন্তোষ সৃষ্টি হয়ে বুধবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত মাহিন্দ্রা- আলফা গাড়ি চালানো বন্ধ রাখা হয়।এর ফলে দিন ভর যাত্রীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হয়। ২৩ ফেব্রুয়ারী বানারীপাড়া সেবা বাস ষ্ট্যান্ডে  হেলপার দিয়ে গাড়ি প্লেস করার সময় রেডসান প্রি-ক্যাডেট স্কুলের সিনিয়র শিক্ষক মোঃ শাহিন হোসেনের স্ত্রী মুন্নী খানম (৩৫) বাস চাপায় মর্মান্তিক ভাবে নিহত হন।ওই সময় এর প্রতিবাদে ও বাস ষ্ট্যান্ড স্থাণান্তরের দাবীতে ৬ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের  শিক্ষক,শিক্ষার্থী,অভিভাবক ও বিভিন্ন সংগঠন সহ সচেতন মহল মানববন্ধন করলে বাস ষ্ট্যান্ড স্থানান্তর করা হয়।পরে সেবা গেটলগ বাস পরিবহণ  মাহিন্দ্রা-আলফা ষ্ট্যান্ড অন্যত্র সরানোর জন্য আল্টিমেটাম দেয় ও প্রশাসন এবং শীর্ষ

জনপ্রতিনিধি সহ বিভিন্ন জনের কাছে দেন দরবার শুরু করেন।মাহিন্দ্রা-আলফা ষ্ট্যান্ড সরানো না হলে পূর্বের সেবা বাস ষ্ট্যান্ডে আবারও তারা  ফিরে আসার হুমকি দেয়।বুধবার সকালে ওসি মোঃ সাজ্জাদ হোসেনের নেতৃত্বে  পুলিশ মাহিন্দ্রা-আলফা সমিতির নেতা ও শ্রমিকদের ষ্ট্যান্ড পৌর ভবনের সামনে স্থাণান্তর করার নির্দেশ দেন।এর ফলে বুধবার সকাল থেকে মাহিন্দ্রা -আলফা বন্ধ  থাকায় শত শত যাত্রীদের তাদের গন্তব্যে পৌঁছাতে চরম ভোগান্তি পোহাতে হয।পরে বিকেলে স্থাণীয় সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট তালুকদার মো.ইউনুস শুক্রবার মাহিন্দ্রা-আলফা শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দকে নিয়ে বসে এ সমস্যার সমাধান করার আশ্বাস দেওয়ার ফলে সাময়িক ভাবে মাহিন্দ্রা-আলফা ষ্ট্যান্ড স্থাণান্তর করে পৌর ভবনের সামনে নেওয়া হয় এবং মাহিন্দ্রা-আলফা গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক করা হয়।প্রসঙ্গত মাহিন্দ্রা -আলফা ষ্ট্যান্ড লাগোয়া কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান’র শিক্ষক,শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা মাহেন্দ্র-আলফা গাড়িতে স্বাচ্ছন্দ্যে আসা যাওয়া করতে পারেন। বানারীপাড়া বন্দর বাজার সংলগ্ন মাহিন্দ্রা-আলফা ষ্ট্যান্ড থেকে প্রায় এক কিলোমিটার দূরে রায়েরহাট পর্যন্ত এ গাড়িতে ভাড়া মাত্র ৫ টাকা।অথচ রিক্সায় সেখানে ভাড়া গুনতে হয় ২০ টাকা।এছাড়া কোন মুমুর্ষ রোগীকে যদি উন্নত চিকিৎসা দেওয়ার প্রয়োজন হয় তখন এ্যাম্বুলেন্স না পেলে এ উপজেলায় একমাত্র ভরসা মাহেন্দ্র-আলফা।ফলে ব্যবসায়ী ও শিক্ষার্থী,শিক্ষক ও অভিভাবক সহ যাত্রীদের এ পরিবহণের (মাহিন্দ্রা-আলফা) ওপর বিশেষ দূর্বলতা রয়েছে।

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>