বাবা-মেয়েকে প্রকাশ্য দিবালোকে হাতুড়িপেটা

মে ২৮ ২০১৭, ১৭:৪৯

 

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি: পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় প্রকাশ্য দিবালোকে হাতুড়িপেটা করে গুরুতর জখম করা হয়েছে ৭০ বছরের বৃদ্ধ শাহআলম হাওলাদার ও তার মেয়ে কল্পনা (৪০) কে । শনিবার শেষ বিকালে বাবা ও মেয়েকে দুই দফা হাতুড়িপেটা করা হয়। প্রথম দফা কল্পনা ও তার বাবাকে মধুপাড়া বাজারে ফেলে এবং দ্বিতীয়দফা বালিয়াতলী খেয়াঘাটে ফের শাহআলমকে মারধর করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কল্পনার চুরি হওয়া দেড় লক্ষাধিক টাকার দু’টি গাই গরুর খোঁজ করতে বাজারে গেলে কল্পনা ও তার বাবাকে এমন বেধড়ক হাতুড়িপেটা করা হয়। তাদের হাত-পা, বাহু ও হাঁটুতে মারাত্মক জখম করা হয়েছে। শুধু তাই নয় মারধরের কবল থেকে রক্ষায় তারা দৌড়ে বৌদ্ধপাড়া গ্রামের হাবিব হাওলাদারের

বাড়িতে আশ্রয় নেয়। সেখান থেকে পুলিশ রবিবার তাদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করে।

আহত কল্পনা জানান, তার বাড়ির সামনে থেকে দুটি গাই গরু সুমন এবং মধুর যোগসাজশে আট-দশ সন্ত্রাসী শনিবার দুপুরে নিয়ে যায়। এখবর জানতে পেরে কল্পনা সুমনের চাচা জেলা পরিষদের সদস্য আসলাম হাওলাদারকে জানান। তিনি বাজারে গরু খোঁজার জন্য বলেন। কল্পনা সেখানে গরুর খোঁজ পেয়ে আনতে গেলে মারধর হামলার শিকার হন।

এ ঘটনায় বালিয়াতলী ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা এবিএম হুমায়ুন কবিরের ছেলে সুমন হাওলাদার, উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান মোস্তফা কামালের ছেলে পিয়ার ওরফে মধুকে আসামি করে কলাপাড়া থানায় একটি মামলা হয়েছে।

কলাপাড়া থানার ওসি জিএম শাহনেওয়াজ জানান, আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Facebook Comments