ভাতের সঙ্গে দই: নিয়ন্ত্রণে থাকবে ওজন!

জুলাই ২৮ ২০১৭, ২১:৩৪

শরীর সুস্থ রাখতে দই-চিড়া খান অনেকেই। দই-চিড়ার মতো ভাতের সঙ্গে দই মিশিয়ে খেলেও উপকার পাবেন। অফিসের লাঞ্চে খেতে পারেন এক বাটি দই-ভাত। এটি যেমন এনার্জির যোগান দেবে, তেমনি ঠাণ্ডা রাখবে শরীর। ভাতের সঙ্গে দইয়ের পাশাপাশি কলা অথবা ফল মিশিয়েও খেতে পারেন।

জেনে নিন দই-ভাত কী কী উপরকার করে শরীরের-
হজমের সমস্যা দূর করে
দই-ভাত একসঙ্গে খেলে হজমের গণ্ডগোল দূর হয়। দইয়ে উপস্থিত উপকারি ব্যাকটেরিয়া শরীরে প্রবেশ করা মাত্রা তা ধীরে ধীরে হজম ক্ষমতার উন্নতি ঘটাতে থাকে। সেই সঙ্গে দূর হয় কোষ্ঠকাঠিন্য।
শরীর ঠাণ্ডা রাখে
গরমে নিয়মিত দই-চিড়া অথবা দই-ভাত খেলে ঠাণ্ডা থাকে শরীর। দইয়ে রয়েছে তাপবিরোধী উপাদান, যা নিমেষেই তাপদাহকে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে।
কর্মক্ষমতা

বাড়ায়
দইয়ে উপস্থিত প্রোবায়োটিকস, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং উপকারি ফ্যাট মস্তিষ্কে কিছু পরিবর্তন এনে মানসিক চাপ কমায় ও এনার্জি বাড়ায়। ফলে কর্মক্ষমতা বাড়ে।
ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখে
পুষ্টিকর দইয়ের সঙ্গে ভাত মিশিয়ে খেলে অনেকক্ষণ পর্যন্ত ভরে থাকে পেট। তাই অতিরিক্ত মেদ নিয়ে যারা চিন্তায় আছেন তারা নির্দ্বিধায় ডায়েট চার্টে রাখতে পারেন দই-ভাত।
রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়
অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে পরিপূর্ণ দই-ভাত নিয়মিত খেলে বাড়ে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। ফলে স্বাভাবিকভাবেই নানাবিধ সংক্রমণের আশংকা কমে যায়।
পুষ্টির চাহিদা মেটায়
দইয়ে রয়েছে ক্যালসিয়াম, উপকারি ফ্যাটসহ বিভিন্ন পুষ্টি উপাদান। অন্যদিকে ভাত থেকে পাওয়া যায় পর্যাপ্ত কার্বোহাইড্রেট। ফলে দই ও ভাত একসঙ্গে খেলে পূরণ হয় শরীরের বেশকিছু পুষ্টির চাহিদা।

তথ্য: বোল্ডস্কাই  

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>