ভোলায় প্রার্থীর ভোট বর্জন, চার জনকে জরিমানা

এপ্রিল ১৬ ২০১৭, ১৬:১৫

ভোলার দৌলতখান উপজেলার সৈয়দপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) এক মেম্বর প্রার্থী এজেন্টদের বের করে দেওয়া, হুমকি-ধামকি ও নিরাপত্তার অভাবসহ নানা অভিযোগ এনে নির্বাচন বর্জন করেছেন।

আজ রোববার দুপুর ১টার দিকে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তিনি নির্বাচন থেকে সরে গিয়ে পুনরায় ভোটগ্রহণের দাবি জানান।

সৈয়দপুর চার নম্বর ওয়ার্ডে মেম্বর প্রার্থী ইয়ারুল হকের পক্ষে সংবাদ সম্মেলন করেন প্রার্থীর ভাই পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ারুল হক।

তিনি বলেন, মোরগ প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশ নেন ইয়ারুল হক। ভোটগ্রহণ শুরুর পর ১০ টা পর্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবে ভোট অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু এর পরেই প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীর লোকজন কেন্দ্রে ঢুকে জোর করে কেন্দ্রের দায়িত্বরত এজেন্টদের বের করে দেন। বিষয়টি সঙ্গে সঙ্গে কেন্দ্রে দায়িত্বরতদের জানানো হলেও তারা কোনো ব্যবস্থা

গ্রহণ করেনি। তাই দলের কর্মী সমর্থক ও এজেন্টদের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে নির্বাচন বর্জন করা হয়েছে। এসময় সংবাদ সম্মেলনে তিনি পুনরায় ভোটগ্রহণের দাবি জানান।

এদিকে জাল ভোট দেওয়ার দায়ে ভোলার দৌলতখান উপজেলার সৈয়দপুর ইউনিয়নের একটি কেন্দ্রে চার জনকে চার হাজার টাকা করে ১৬ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

রোববার দুপুর দেড়টার দিকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হুমায়ুন কবির এ জরিমানা করেন।

কেন্দ্রে দায়িত্বরত পুলিশের উপ সহকারী পরিদর্শক জুগল জানান, সকালে এক নম্বর ওয়ার্ডের কালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে জাল ভোট দেওয়ার সময় চার জনকে আটক করে কেন্দ্রের দায়িত্বরত কর্মকর্তারা। পরে দুপুরে তাদের ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হয়। এসময় দোষ স্বীকার করায় বিচারক এ জরিমানা করেন।

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>