মাংস ব্যবসায়ীদের কর্মসূচি ঘোষণা

আপডেট : April, 30, 2017, 12:52 pm

আগামী ১৫ দিনের মধ্যে সমস্যার সমাধানে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা না নিলে রমজানের প্রথম দিন থেকে সারা দেশে কর্মবিরতিতে যাবেন মাংস ব্যবসায়ীরা।

ঢাকা মেট্রোপলিটন মাংস ব্যবসায়ী সমিতির মহাসচিব রবিউল আলম আজ রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

রবিউল আলম বলেন, দাবি পূরণ না হলে তাঁদের ঘোষিত কর্মবিরতি ধর্মঘটে রূপ নিতে পারে।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, দাম বেশি হওয়ায় গরু ও খাসির মাংস খাওয়া ছেড়ে দিয়েছেন সাধারণ মানুষ। ফলে মাংস বিক্রি কমে গেছে। বাংলাদেশে অর্ধেকের বেশি মাংসের দোকান বন্ধ হয়ে গেছে।

সংবাদ সম্মেলন বিভিন্ন ধরনের অভিযোগ, সমস্যা ও দাবি তুলে ধরেন ঢাকা মেট্রোপলিটন

মাংস ব্যবসায়ী সমিতির মহাসচিব। তিনি বলেন, পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে গেছে যে, আন্দোলনের বিকল্প নেই।

গরুর মাংসের ব্যবসা নিয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন মাংস ব্যবসায়ী সমিতির সঙ্গে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) ও ইজারাদারদের দ্বন্দ্ব চলছে। এই দ্বন্দ্বের জেরে কর্মবিরতিতে যাওয়ার হুমকি দিল মাংস ব্যবসায়ী সমিতি। এর আগে গত ১৩ থেকে ১৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ছয় দিনের কর্মবিরতি পালন করেছিলেন মাংস ব্যবসায়ীরা।

ঢাকা মেট্রোপলিটন মাংস ব্যবসায়ী সমিতির মহাসচিব রবিউল আলম বলেন, তাঁদের দাবির মধ্যে আছে, খাজনা কমানো, চাঁদাবাজি বন্ধ করা, চামড়া বিক্রির ব্যবস্থা করা, ডিএসসিসিতে স্থায়ী পশুর হাট তৈরি, মানসম্মত একাধিক কসাইখানা তৈরি ইত্যাদি।

Facebook Comments