মাইক্রোসফটের এ কোন স্মার্টফোন!

জুন ১৩ ২০১৭, ১৪:২৩

উইন্ডোজ ফোনের দুর্দশা দেখে অনেকেই ভাবছিলেন, মাইক্রোসফট বুঝি স্মার্টফোন বাজার থেকে সরে গেল! কিন্তু মাইক্রোসফট কখনো আনুষ্ঠানিকভাবে উইন্ডোজ ফোনকে বিদায় বলেনি। মাইক্রোসফটের কর্মকর্তারা বরং নতুন চমক হিসেবে নতুন ধরনের মাইক্রোসফট ফোনের কথা বলে আসছেন। এবার মাইক্রোসফটের নতুন ধরনের ফোনের কিছুটা আঁচ পাওয়া গেল। মাইক্রোসফট নতুন ধরনের ফোনের জন্য পেটেন্ট করাচ্ছে। সেই পেটেন্টের তথ্য অনুযায়ী, ভাঁজ করা যায় এবং তিনটি মোডে চালানো যায়, এমন স্মার্টফোন তৈরির পরিকল্পনা করছে মাইক্রোসফট।

মাইক্রোসফটের নতুন ফোনটিতে ভাঁজ করা যায়, এমন স্ক্রিন যেমন থাকবে, তেমনি এটি ৩৬০ ডিগ্রি মোডে ঘোরানো যাবে। অর্থাৎ, চাইলে ফোনটিকে ট্যাবলেট কম্পিউটার আকারেও ব্যবহার করা যাবে। এটিকে মাইক্রোসফটের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের স্মার্টফোন বলা হচ্ছে।

মাইক্রোসফটের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সত্য নাদেলা বলেছেন, মোবাইল হার্ডওয়্যার বাজারে আবার নতুন করে ঢুকতে যাচ্ছে মাইক্রোসফট। এবার স্মার্টফোনের ধারণাই বদলে দেবে মাইক্রোসফট। প্রচলিত কোনো স্মার্টফোনের মতো হবে না মাইক্রোসফটের ফোন। অর্থাৎ স্মার্টফোনের দুনিয়ায় পরিবর্তন আসতে যাচ্ছে। এ ক্ষেত্রে নতুন উদ্ভাবন দেখাতে যাচ্ছে বিশ্বের বৃহত্তম সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি।

মাইক্রোসফটের হলোলেন্স বিভাগের প্রধান অ্যালেক্স কিপম্যান বলেছেন, মোবাইল ফোনের ভবিষ্যতের সঙ্গে বিভিন্ন ধরনের রিয়্যালিটি প্রযুক্তি যুক্ত থাকবে। অর্থাৎ মোবাইল ফোনের দুনিয়ায় মাইক্রোসফটকে সফল হতে হলে সাহসী ও উদ্ভাবনী হতে হবে।

মাইক্রোসফটের পেটেন্ট অবশ্য তাদের কর্মকর্তাদের কথারই প্রতিফলন। ফোনটিকে

এমনভাবে তৈরি করা হচ্ছে, যাতে নতুন নতুন প্রযুক্তির পাশাপাশি নকশার দিক থেকেও পরিবর্তন আনতে যাচ্ছে মাইক্রোসফট।

ভাঁজ করার সুবিধাযুক্ত স্মার্টফোনের ধারণা অবশ্য একেবারে নতুন নয়। দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিষ্ঠান স্যামসাং এ ধরনের স্মার্টফোন তৈরিতে কাজ করছে। তবে মাইক্রোসফটের নতুন স্মার্টফোনের সঙ্গে স্যামসাংয়ের কোনো মিল থাকছে না। মাইক্রোসফটের স্মার্টফোনটি হবে টু-ইন-ওয়ান। গুঞ্জন উঠেছে, মাইক্রোসফট একটি ডিভাইসে নানা রকম সুবিধা দেওয়ার পণ্য তৈরিতে আগ্রহী।

পেটেন্ট অনুযায়ী, মাইক্রোসফটের স্মার্টফোনে থাকছে জিরো ডিগ্রি, ১৮০ ডিগ্রি ও ৩৬০ ডিগ্রি মোড। জিরো ডিগ্রির অর্থ, এটি প্রচলিত স্মার্টফোনের মতো কাজ করবে। ১৮০ ডিগ্রি বাঁকা করে এটি ট্যাব হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। এ ছাড়া এটি ভাঁজ করে পকেটে রাখা যাবে।

বাজার বিশ্লেষকেরা বলছেন, মাইক্রোসফটের স্মার্টফোনটি এখনো পেটেন্ট পর্যায়ে রয়েছে বলে এটি বাজারে আসার বিষয়ে সংশয় রয়েছে। এ ছাড়া মাইক্রোসফটের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানানো হয়নি। এ ছাড়া ফোনটির বাজার সফলতা নিয়েও নানা প্রশ্ন আছে। ফোনটির যদি আকারে ছোট এবং ওজন কম হয়, তবে এটি ভালো চলবে। তবে এতে স্মার্টফোনের সব সুবিধা থাকতে হবে। ৩৬০ ডিগ্রি মোডের কার্যকারিতা নিয়েও প্রশ্ন রয়েছে। তবে মাইক্রোসফট যদি নতুন উদ্ভাবনী স্মার্টফোন হিসেবে এ ধরনের ফোন বাজারে ছাড়ে তবে তার ভালো-মন্দের বিচার গ্রাহকেরাই করবেন। তথ্যসূত্র: উইনবাজার, দ্য ভার্জ, উইন্ডোজ সেন্ট্রাল।

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>