মানুষের খুলির সেই ভয়ংকর টানেলে পথ হারিয়ে তিন দিন!

জুন ১৬ ২০১৭, ১৬:১৯

প্যারিসের মাটির নিচে রয়েছে এক বিস্তৃত সমাধিক্ষেত্র। ওখানকার দেয়ালে আটকে রয়েছে সারি সারি করোটি।
বলতে গেলে ঘুটঘুটে অন্ধকার ছাড়া আর কিছুই নেই সেখানে। সত্যিকার অর্থেই এক নরক যেন। আর এমন এক ভয়ংকর জায়গাতে হারিয়ে যায় দুই টিনএজার। তাদের একজনের বয়স ১৬, অন্যজন ১৭। তিন দিন পর উদ্ধার করা হয়েছে তাদের।

উদ্ধারের পর দ্রুত তাদের হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। হাইপারথেমিয়ার চিকিৎসা দেওয়া হবে। উদ্ধারকারী দল কুকুর নিয়ে সকাল থেকেই অভিযান শুরু করে।

প্যারিস ফায়ার সার্ভিসের এক মুখপাত্র জানান, কুকুরকে ধন্যবাদ দিতে হয়। তারাই ওদের খুঁজে বের করেছে। টানা ৪ ঘণ্টা ধরে উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করা

হয়।

দক্ষিণ প্যারিসে মাটির নিচে সমাধিক্ষেত্রের এক বিশাল গোলকধাঁধা রয়েছে। ১৫০ মাইল পর্যন্ত বিস্তৃত এই টানেল। এর সামান্য একটা অংশ মানুষের দেখার জন্য খোলা হয়েছে।

এর অন্যান্য অংশে যাওয়া ১৯৫৫ সাল থেকে আইনবিরোধী কাজ। কিন্তু স্কুলের বিচ্ছু বাচ্চারা, অভিযাত্রী আর সাহসী কিছু মানুষ এই টানেলে প্রবেশের গোপন কিছু পথের কথা জানে।

সরু অন্ধকার এই টানেলের তাপমাত্রা থাকে ১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশপাশে। রীতিমতো গা কাঁপানো ঠাণ্ডা। এর মধ্যেই ওই দুই কিশোর হারিয়ে যায়।

মানুষের জন্য যেটুকু উন্মুক্ত করা হয়েছে, তার মধ্যেই যেন আর কেউ হারিয়ে না যায় সেদিকে বিশেষ নজর দিয়েছে ক্যাটাকম্বস মিউজিয়ামের পরিচালক। সূত্র : এমিরেটস

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>