মিয়ানমারের ১১৬ যাত্রীবাহী সামরিক বিমান সাগরে বিধ্বস্ত

জুন ০৭ ২০১৭, ২২:৫৫

মিয়ানমারে ১১৬ যাত্রীবাহী সামরিক বিমানটি আন্দামান সাগরে বিধ্বস্ত হয়েছে। বুধবার বিকালে সাগরে বিমানটির ধ্বংসাবশেষ খুঁজে পাওয়ার পর এই কথা জানায় দেশটির কর্মকর্তারা।

বিমানটিতে ১১৬ জন যাত্রী ছিল বলে প্রাথমকিভাবে জানিয়েছিল মিয়ানমারের সেনা প্রধানের কার্যালয়।

পরে হালনাগাদ তথ্যে কার্যালয় জানায়, বিমানটিতে ১৪ জন ক্রু এবং ১০৬ জন যাত্রী ছিল।

যাত্রীদের প্রায় সবাই ছিলেন সৈন্য ও তাদের পরিবারের সদস্য। এর মধ্যে কয়েক ডজনই ছিল শিশু।

বুধবার দুপুরে বিমানটির সঙ্গে বিমান চলাচল নিয়ন্ত্রকের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার পরপরই এটির খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছিল মিয়ানমারের নৌ জাহাজ

এবং যুদ্ধ বিমান।

বিমানটি দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর মাইয়িক থেকে বাণিজ্যিক রাজধানী ইয়াঙ্গুন যাচ্ছিল।

দুপুর ১টা ৩৫ মিনিটে বিমানটি নিখোঁজ হয়ে যায়। এ সময় বিমানটি ১৮ হাজার ফুট ওপর দিয়ে উড়ছিল।

মিয়ানমারের সেনাপ্রধানের কার্যালয় এক বিবৃতিতে জানায়, দাউয়েই শহরে পৌঁছানোর আগে ২০ মাইল দূরে থাকা অবস্থায় হঠাৎ করে বিমানটির যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

পরে মাইয়িকের পর্যটন কর্মকর্তা নাইং লিন ঝাউ বলেন, দাউয়েই শহর থেকে ১৩৬ মাইল দূরে সাগরে নিখোঁজ বিমানটির ধ্বংসাবশেষ পাওয়া গেছে।

তবে নৌ বাহিনীর তল্লাশি কার্যক্রম অব্যাহতভাবে চলছিল বলে উল্লেখ করেন এ কর্মকর্তা।

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>