ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয়ে ঢাবি শিক্ষার্থীসহ ৫ জনকে বিয়ে

আগস্ট ০১ ২০১৭, ২৩:১৭

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ নিজেকে ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয় দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীসহ পাঁচজনকে বিয়ে করার অভিযোগে কাওসার আলম (৩০) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার সকালে রাজধানীর হাজারীবাগের এক বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, হাজারীবাগের আফসার উদ্দিন লেনের ৪১/১৬/১ নম্বর বাসার নিচতলা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ওই যুবক নিজেকে ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয় দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএ ফ্যাকাল্টির এক শিক্ষার্থীর সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। তিনি কুমিল্লার দেবীদ্বার থানাধীন গুনাইঘর ইউনিয়নের ধলাহাঁস গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে।
পুলিশের ধানমন্ডি জোনের সহকারী কমিশনার আব্দুল্লাহ হেল কাফি বলেন, অভিযোগ পেয়ে হাজারীবাগ থানার পুলিশ ওই বাসায় অভিযান চালায়। এ সময় কাওসার আলম নিজেকে ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে পরিচয় দেন পুলিশের কাছে। তিনি জানান, ৩৫তম বিসিএসের প্রশাসন ক্যাডারের একজন কর্মকর্তা। বর্তমানে ঝালকাঠিতে কর্মরত রয়েছেন। পুলিশ তাকে চ্যালেঞ্জ করলে তিনি একপর্যায়ে স্বীকার করে
যে ‘তিনি ম্যাজিস্ট্রেট নন’। এরপর তার স্ত্রী ঢাবি শিক্ষার্থী ও তার পরিবারের সদস্যদেরও ডাকা হয়। তারা প্রথমে বিশ্বাস না করে চ্যালেঞ্জ করেন। পুলিশ এক সময় তাদের বোঝাতে সক্ষম হন।
পুলিশের ওই কর্মকর্তা আরো বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে কাওসার জানায়, তিনি উচ্চ মাধ্যমিক পাস। আর লেখাপড়া করেননি। কিছুদিন ফ্ল্যাক্সিলোডের ব্যবসা করেছেন। এরপর ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয় বিভিন্ন এলাকায় পাঁচটি বিয়ে করেছেন। দুই বছর আগে জয়পুরহাটের এক মেয়েকে তিনি বিয়ে করেন। ছয় মাস আগে ঢাবির ফজিলাতুনন্নেসা মুজিব হলের এক ছাত্রীর সঙ্গে ফেসবুকে তার পরিচয় হয়। এরপর তাকে বিয়ে করেন।
কাউসার আলমের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার এজাহারে বাদী এসআই মমিনুল হক উল্লেখ করেন, ‘কাওসার ম্যাজিস্ট্রট পরিচয়ে তৈরি করা তার ভিজিটিং কার্ড, সিল উদ্ধার করা হয়েছে।’ মামলায় দণ্ড বিধির ১৭০/৪১৯ ধারায় তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে। এই মামলায় পুলিশ তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠায়।
Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>