শাকিব মনের দুঃখে বলে : রিয়াজ

আপডেট : May, 17, 2017, 10:25 am

বেশ অনেকটা সময় ধরেই চলচ্চিত্র থেকে নিজেকে দূরে সরিয়ে নিয়েছেন ঢালিউডের অন্যতম সফল অভিনেতা রিয়াজ। যদিও বছর দুয়েক আগে মেহের আফরোজ শাওনের ‘কৃষ্ণপক্ষ’ ও ওয়াজেদ আলি সুমনের ‘সুইট হার্ট’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে রুপালি পর্দায় দেখা গিয়েছিল ঢাকাই চলচ্চিত্রের এই সুদর্শনকে।

তবে সম্প্রতি অনেকটাই সক্রিয় হয়েছেন তিনি। এরই মধ্যে দ্বিতীয়বারের মতো চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নেতৃত্বে এসেছেন তিনি। সহসভাপতি পদে বিপুল ভোটে জয়ী হন রিয়াজ। যদিও নির্বাচনের নিয়ে কিছুটা বিতর্ক ওঠে। তবে রিয়াজকে সেই বিতর্ক ছুঁতে পারেনি। নেতৃত্বে ফিরেছেন, কিন্তু চলচ্চিত্রে ফিরছেন কবে?

এমন প্রশ্নের জবাবে আনন্দবাজারকে রিয়াজ বলেন, ‘আমি আসলে চলচ্চিত্রে ফিরতে সম্পূর্ণ প্রস্তুত রয়েছি। কাজের অনেক প্রস্তাবও পাচ্ছি কিন্তু স্ক্রিপ্ট দেখে আর আগ্রহ হয় না। বেশিরভাগ স্ক্রিপ্টই আমাকে হতাশ করেছে। সেজন্যই আজ চলচ্চিত্রের এই করুণদশা। দেখুন, গল্পটাই যদি ভালো মানের না হয়, সেটাতে যদি দেশ বা সমাজের জন্য কোনো বার্তা না থাকে, তবে সেটাতে অভিনয়ের জায়গাটা কোথায়? এগুলো

কি দেখবে দর্শক? এছাড়া পুরনো আমলের গল্প দিয়ে এখন কিছু হবে না। এখন দরকার ২০১৭ সালের গল্প।

অনেক নতুন পরিচালকও আসেন কাজের প্রস্তাব নিয়ে। এদের মধ্যে অনেকে আছেন যাদের নিজেরই কোনো মান নেই। গেটাপ দেখেই আতঙ্কিত হই। একটা মানুষকে দেখে তার বিষয়ে কিছুটা অনুমান করা যায়। চলচ্চিত্র কোনো সহজ বিষয় না। মানহীন ও মেধাহীনদের দিয়ে চলচ্চিত্র তৈরি হলে সেই চলচ্চিত্র দেশ বা শিল্পের জন্য কোনো উপকারে আসবে না। আসলে শাকিব যে মাঝে মধ্যে যা বলে তা মনের দুঃখে বলে।’

তাহলে চলচ্চিত্রের এই করুণদশা কাটিয়ে ওঠার উপায় কি বলে আপনি মনে করেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘চলচ্চিত্রের এই করুণদশা কাটিয়ে উঠতে হলে মেধাবী তরুণ নির্মাতাদের সুযোগ করে দিতে হবে। এক্ষেত্রে প্রযোজকদের ভূমিকা অনেক। তাদের এ বিষয়ে ইতিবাচকভাবে এগিয়ে আসতে হবে। আসলে অমিতাভ রেজার মতো গুণী নির্মাতাদের চলচ্চিত্রে আসা দরকার। এদের মতো অনেকেই রয়েছে কিন্তু তারা সুযোগ পাচ্ছে না।’

Facebook Comments