শাহজালালের মাজার ঘিরে অর্ধশত সিসি ক্যামেরা

আগস্ট ১১ ২০১৭, ১০:৫৮

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ওলীকুল শিরোমণি, উপমহাদেশের প্রখ্যাত ইসলাম ধর্ম প্রচারক হযরত শাহজালাল (রহ.) এর ৬৯৮তম বার্ষিক ওরস অনুষ্ঠিত হবে আগামী শনি-রবিবার। এই ওরসকে কেন্দ্র করে কঠোর নিরাপত্তা বলয় গড়ে তুলছে সিলেট মহানগর পুলিশ (এসএমপি)।

থাকছে চারস্তরের নিরাপত্তাবলয়।

এদিকে, ওরসকে কেন্দ্র করে শাহজালালের মাজার এলাকায় বসানো হচ্ছে অর্ধশত ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা (সিসি ক্যামেরা)। এছাড়া মহানগরীর পাঁচটি সড়কে যান চলাচলও নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

পুলিশের ঊর্ধ্বতন সূত্র জানিয়েছে, শাহজালাল (রহ.) এর ওরসকে কেন্দ্র পুরো মাজার এলাকাকে নিজেদের নিরাপত্তা ব্যুহের আওতায় নিয়ে আসবে পুলিশ। ওরসকে কেন্দ্র করে কয়েকদিন আগে পুলিশ, স্থানীয় প্রশাসন, গোয়েন্দা সংস্থা ও মাজার কমিটির নেতৃবৃন্দের সমন্বয়ে একটি সভাও অনুষ্ঠিত হয়। মাজার এলাকার নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে পর্যালোচনা ও বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয় ওই সভায়।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার জেদান আল মুসা বলেন, শাহজালাল (রহ.) এর ওরস মোবারককে কেন্দ্র করে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ইতিমধ্যেই পুলিশ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিতে তৎপরতা শুরু করেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ওরসকে কেন্দ্র করে আগামী শুক্রবার থেকেই মাজার এলাকা ঘিরে মাঠে নেমে পড়বে পুলিশ। নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে থাকবে ছদ্মবেশী পুলিশ। ভিক্ষুক, সাধারণ মানুষ, বিভিন্ন পণ্য বিক্রেতা, চানাচুরবিক্রেতাসহ নানা ছদ্মবেশ ধারণ করে ওরসে আগত জনতার সাথে মিশে যাবেন পুলিশ ও গোয়েন্দা সদস্যরা। নিরাপত্তার কাজে এক হাজারেরও বেশি পুলিশ সদস্য কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার জেদান আল মুসা।

সূত্র জানায়, ওরসের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এবং সন্দেহজনক যেকোনো ধরনের তৎপরতা রুখে দিতে শাহজালালের মাজার এলাকায় অর্ধশতাধিক ক্লোজ সার্কিট

ক্যামেরা বসানো হচ্ছে। বর্তমানে মাজার এলাকায় থাকা ১৮টি সিসি ক্যামেরার সাথে আরো প্রায় ৩০টি ক্যামেরা বসানোর কাজ করছে পুলিশ প্রশাসন।

সূত্র জানায়, ওরস চলাকালীন সময়ে মাজার এলাকায় চারস্তরের নিরাপত্তাবলয় গড়ে তোলা হবে। এই চার স্তর হচ্ছে- মাজারের মূল ফটক, ইনার কর্ডন, আউটার কর্ডন এবং মাজার এলাকার আশপাশের বিভিন্ন পয়েন্টে নিরাপত্তা ব্যবস্থা। মাজারের আশপাশের হোটেলগুলোতেও থাকবে নজরদারি। নিরাপত্তায় পুলিশের সাথে র‌্যাব, আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন, স্পেশাল ব্র্যাঞ্চ (সিটি এসবি), বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরাও দায়িত্ব পালন করবেন।

পুলিশ কর্মকর্তা জেদান আল মুসা বলেন, ওরসে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আমরা সবধরনের ব্যবস্থাই গ্রহণ করছি। মাজার এলাকায় বসানো হচ্ছে অর্ধশত সিসি ক্যামেরা। ওরস চলাকালে এগুলো সার্বক্ষণিকভাবে মনিটরিং করা হবে। ’

তিনি আরো বলেন, ‘নিরাপত্তা রক্ষায় পুলিশ, র‌্যাব, আর্মড পুলিশ, গোয়েন্দা সদস্যরা একসাথে কাজ করবেন। ’

এদিকে, শাহজালালের ওরস চলাকালে বিশৃঙ্খলা এড়াতে নগরীর পাঁচটি সড়কে যান চলাচল নিষিদ্ধ করেছে পুলিশ প্রশাসন। এছাড়া ওরস চলাকালে মাজার ও আশপাশ এলাকায় কোনো ধরনের যানবাহন পার্কিং না করতেও নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। পুলিশ জানায়, ওরস চলাকালীন সময়ে আম্বরখানা-চৌহাট্টা পয়েন্ট পর্যন্ত সড়ক, দর্শন দেউরী-ঝর্ণারপাড়, রাজার গলি-মাজারের প্রধান গেইট, মিরের ময়দানস্থ হোটেল হেরিটেজ-ঝর্ণারপাড় সড়ক এবং আলিয়া মাদরাসা সড়কস্থ পূবালী ব্যাংকের গেইট-মিনার গেইট পর্যন্ত সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। সিলেট মহানগর পুলিশ আইন ২০০৯ এর ২৯ ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এসব সড়কে যানচলাচল বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ওরস চলাকালে ফায়ার সার্ভিস, বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মী, মেডিকেল সার্ভিস এবং মাজারের স্বেচ্ছাসেবক বাহিনীও দায়িত্ব পালন করবেন।

Facebook Comments