শিকারপুর ইউপি নির্বাচনঃ সন্ত্রাসী ও ক্যাডারদের আনাগোনায় শঙ্কিত ভোটাররা

আপডেট : May, 21, 2017, 3:44 pm

উজিরপুর প্রতিনিধিঃ উজিরপুর উপজেলার ৮নং শিকারপুর ইউপি নির্বাচনকে সামনে রেখে বহিরাগত ও পেশাদার সন্ত্রসী ক্যাডারদের আনাগোনায় শঙ্কিত সাধারন ভোটাররা। চেয়ারম্যান পদে ৩জন ও সাধারন সদস্য মেম্বর পদে ৩১জন, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১৪জন প্রতিদ্বন্দিতা করায় ওই নির্বাচনী এলাকা বেশ উৎসবমুখর হলেও নির্বাচনের সময় যত ঘনিয়ে আসছে ততই ক্যাডারদের চাহিদা বাড়ছে। কয়েকজন মেম্বর প্রার্থীদের দাপটে সাধারন ভোটাররা শঙ্কিত। নির্বাচনের আর বাকি দুই দিন থাকলেও ক্যাডাররা দাপটের সাথে তাদের পছন্দের প্রার্থীর পক্ষে কাজ করছেন প্রকাশ্যে। কয়েকটি ওয়ার্ডে মেম্বর পদে বেশ প্রতিদ্বন্দিতা হবার কারনে ওই সব ওয়ার্ডে প্রতিপক্ষের ভোটারদের ঘায়েল করতে ক্যাডার ব্যবহার করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে নির্বাচন কমিশনার সব কিছু মোকাবেলা করতে পদক্ষেপ নিবেন বলে জানিয়েছেন। এদিকে উজিরপুর থানার ওসি গোলাম সরোয়ার জানিয়েছেন, আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রনে আনতে  ও ভোটারদের নির্বিঘেœ ভোট প্রদানের লক্ষে পুলিশের পাশাপাশি বিজিবি ও র‌্যাব মোতায়েন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আগামী ২৩শে মে মঙ্গলবার ওই ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ৯টি কেন্দ্রে ভোট প্রদান করবেন ভোটাররা। ৯টি কেন্দ্রের মধ্যে ৬টি

কেন্দ্রই বেশ ঝুকিপূর্ন। ওই সব কেন্দ্রে বেশ কয়েকজন মেম্বর প্রার্থী তাদের পেশিশক্তি প্রয়োগ করে নির্বাচনী ফলাফল তাদের অনুকুলে নেয়ার জন্য নানামুখি তৎপরতা চালাচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এদিকে অভিযোগ উঠছে ভোটার তালিকায় প্রায় সবগুলি ওয়ার্ডেই ব্যপক মৃত ব্যক্তি রয়েছেন ভোটার তালিকায়। এছাড়াও এক ওয়ার্ডের বাসিন্দারা অন্য ওয়ার্ডে ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হওয়ায় ব্যাপক হারে জাল ভোটের শঙ্কায় রয়েছেন প্রার্থীরা। ঝুকিপূর্ন কেন্দ্রের মধ্যে অন্যতম ৪নং ওয়ার্ড শিকারপুর বন্দরের জয়শ্রী মুন্ডুপাশা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ৫নং ওয়ার্ড শিকারপুর শেরে বাংলা ডিগ্রি কলেজ ও ৩নং ওয়ার্ডের পূর্ব জয়শ্রী ভোটকেন্দ্র, ৪নং ওয়ার্ডের সাধারন ভোটাররা বেশ আতঙ্কিত একদল ক্যাডার বাহিনীর ভয়ে। ক্যাডাররা প্রতিপক্ষ ভোটারদের নানাভাবে হুমকি দিচ্ছে, এমনকি ভোটকেন্দ্রে প্রকাশ্যে ভোট না দিলে নির্বাচনের মাঠেই ভোটারদের পিটিয়ে জখম করার ঘোষনা দিচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ২নং ওয়ার্ডের মেম্বর পদে দুই প্রার্থীর মধ্যে পাল্টাপাল্টি শোডাউনে সাধারন ভোটাররা আতঙ্কিত। উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার মোঃ জসিম উদ্দিন জানিয়েছেন, ঝুকিপূর্ন কেন্দ্রগুলোতে বাড়তি নিরাপত্তা দেয়া হবে। জালভোট রোধে প্রশাসন কঠোর ব্যবস্থা নিবেন।

Facebook Comments