শুরুতেই অচল আড়াই কোটি টাকার সিসি ক্যামেরা!

আপডেট : July, 4, 2017, 9:47 am

জঙ্গি তত্পরতা রোধ ও নিরাপত্তার স্বার্থে দেশের প্রধান প্রধান শহরে ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরা স্থাপনের হিড়িক পড়ে যায়। চাঞ্চল্যকর অনেক ঘটনা সিসি ক্যামেরায় ধরা পড়ায় সড়ক, বাড়ি এবং মার্কেটে সিসি ক্যামেরার গুরুত্বও বেড়ে যায়। সুফলও মিলছে। এরই ধারাবাহিকতায় বরিশাল নগরীতে সিসি ক্যামেরা স্থাপনের উদ্যোগ নেয় সিটি করপোরেশন (বিসিসি)। গত পয়লা বৈশাখ আনুষ্ঠানিকভাবে ক্যামেরার কার্যক্রম উদ্বোধন করা হলেও এরই মধ্যে প্রায় ৮০ ভাগ অচল! সংরক্ষণ ও তদারকির অভাবে সিসি ক্যামেরার সুফল থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন নগরবাসী। শুধু তাই নয়, আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণেও সহায়তা নিতে পারছে না পুলিশসহ বিভিন্ন সংস্থা। এ প্রসঙ্গে সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, নগরীর রূপাতলী থেকে নথুল্লাবাদ কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, হাসপাতাল রোড, সদর রোড, লঞ্চঘাটসহ বিভিন্ন

পয়েন্টে ২৬৯টি সিসি ক্যামেরা স্থাপন রয়েছে। গত পয়লা জানুয়ারি ৭০ ভাগ ক্যামেরার কার্যক্রম চালু হয়েছে। নজরদারির জন্য ৮টি পয়েন্টের মধ্যে ৬টি চালু হয়েছে। বাকিগুলোও চালু করা হবে। বিসিসি সূত্র জানায়, ২ কোটি ৫৯ লাখ টাকা ব্যয়ে নগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে ২৬৩টি সিসি ক্যামেরা স্থাপনের টেন্ডার আহ্বান করা হয়। কাজ অর্ধ সম্পন্ন রেখে ১৪ এপ্রিল (পয়লা বৈশাখ) তড়িঘড়ি উদ্বোধন করা হলে দুই মাস যেতে না যেতেই যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে ১৫টি ক্যামেরা বিকল হয়ে যায় এবং সংযোগ ক্যাবল চুরি হওয়ায় ৮০ ভাগ ক্যামেরা বন্ধ হয়ে যায়। সিসি ক্যামেরা নিয়ন্ত্রক বিসিসির বিদ্যুৎ শাখার এক কর্মকর্তা জানান, ‘চুরি হয়ে যাওয়ায় সিসি ক্যামেরায় নতুন করে ক্যাবল সংযোজন করা হচ্ছে। শিগগিরই সবকটি ক্যামেরা চালু হবে। ’

Facebook Comments