‘সাংবাদিকদের প্রতিবাদের মুখে ৫৭ ধারা বাতিলের ঘোষণা দিয়েছেন আইনমন্ত্রী’

আপডেট : July, 22, 2017, 9:25 pm

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সাংবাদিকদের প্রতিবাদের মুখে আইনমন্ত্রী তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারা বাতিলের ঘোষণা দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্য উপদেষ্টা ও সাংবাদিক ইকবাল সোবহান চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রতিবাদের মুখে আইনমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছেন, ৫৭ ধারা বাতিল করা হবে। এ বিষয়ে আইন ও তথ্য মন্ত্রণালয় এবং সরকার পদক্ষেপ নিচ্ছে।’
বঙ্গবন্ধু শিশু-কিশোর মেলা লালমনিরহাট জেলা শাখা আয়োজিত জাতীয় সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ২০১৭-এর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান শেষে স্থানীয় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ইকবাল সোবহান চৌধুরী এসব কথা বলেন। শহরের পুরাতন জেলা পরিষদ মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি প্রধান অতিথি ছিলেন।
অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রীর এই তথ্য উপদেষ্টা বলেন, ‘সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের এই ধারায় মামলা করা হচ্ছে, নির্যাতন করা হচ্ছে। তাই এই ধারাটি নিয়ে সারাদেশে তো বটেই, বিশেষ করে সাংবাদিক মহলেও প্রতিবাদ হচ্ছে। আমাদের সেই প্রতিবাদের মুখে আইনমন্ত্রী ধারাটি বাতিলের ঘোষণা দিয়েছেন।’
ইকবাল সোবহান বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মতপ্রকাশের স্বাধীনতার জন্য আন্দোলন-সংগ্রাম করেছেন। গণতন্ত্রের স্বার্থে তিনি মুক্ত গণমাধ্যম চান। সেখানে এই ৫৭ ধারা বাতিল হবে। কোনও কালা কানুন গণমাধ্যমের স্বাধীনতা খর্ব করলে তা মেনে নেওয়া হবে না। এ

বিষয়ে আইন ও তথ্য মন্ত্রণালয় এবং সরকার পদক্ষেপ নিচ্ছে।’
এর আগে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় শিশুদের গড়ে তুলতে হবে। শিশুদের আধুনিক ডিজিটাল কর্মমুখী শিক্ষা দিতে হবে যেন তারা এই শিক্ষা নিয়ে দেশে ও দেশের বাইরে কর্মসংস্থান নিশ্চিত করতে পারে। এসব বিষয়ে সরকারের পাশাপাশি অভিভাবকদেরও ভূমিকা রাখতে হবে। অভিভাবকদের খেয়াল রাখতে হবে যেন দেশে জঙ্গিবাদ মাথা চারা দিতে না পারে।’ জেলা শিশু-কিশোর মেলার সভাপতি মোড়ল হুমায়ুন কবীরের সভাপতিত্বে ইকবাল সোবহান প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন।
অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন লালমনিরহাট-কুড়িগ্রামের সংরক্ষিত নারী আসনের সাংসদ ও লালমনিরহাট জেলা আইনজীবী সমিতিরি সভাপতি অ্যাডভোকেট সফুরা বেগম রুমী, লালমনিরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মতিয়ার রহমান, বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মিয়া মনসফ, সাধারণ সম্পাদক ইয়াছির মোহাম্মদ, শিশু-কিশোর মেলার কেন্দ্রীয় প্রধান পৃষ্ঠপোষক মীর মোশাররফ হোসেন, লালমনিরহাট শাখার প্রধান পৃষ্ঠপোষক কবি ফেরদৌসী বেগম বিউটি প্রমুখ।
পরে তিনি লালমনিরহাট জেলা পরিষদের নতুন মিলনায়তনে রংপুর বিভাগীয় (আট জেলার সব পৌরসভার) পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারী অ্যাসোসিয়েশনের বিভাগীয় সমাবেশেও বক্তব্য রাখেন।

Facebook Comments