সাকিবের ‘সেরা বাংলাদেশ’ এটিই

মে ০৩ ২০১৭, ১১:৩৭

একটি বিষয়ে কোনো সন্দেহই নেই সাকিব আল হাসানের। বাংলাদেশের বর্তমান দলটি দেশের ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা। দলে ভালো ব্যাটসম্যান, বোলার—দলে সবই দেখছেন তিনি। মাঠের ফলাফলেও যেন সেটিরই প্রতিফলন। তবে বাংলাদেশের নতুন টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মনে করেন, ২০ ওভারের ক্রিকেটে দলের উন্নতিটা আরও দ্রুত হওয়া দরকার।
কলকাতায় ওয়ান ইন্ডিয়াকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সাকিব বাংলাদেশের বর্তমান দলকে ইতিহাসের সেরা দল বলেছেন টিম কম্বিনেশনের বিচারেই, ‘বাংলাদেশের বর্তমান দলে বেশ কয়েকজন ভালো ব্যাটসম্যান আছে, ভালো পেসার, স্পিনার—সবই আছে। আমি মনে করি, বর্তমান দলটা বাংলাদেশের ক্রিকেটে এখন পর্যন্ত সেরা দল। গত দুই বছরে বাংলাদেশের পারফরম্যান্সই আমার কথাকে সমর্থন জোগাচ্ছে। আমাদের ক্রিকেট সঠিক পথেই আছে।’
টি-টোয়েন্টি অধিনায়কত্বকে ‘চ্যালেঞ্জ’ হিসেবেই মনে করছেন তিনি। চ্যালেঞ্জ এই সংস্করণে দলের উন্নতির গ্রাফ ওপরের দিকে তোলাই, ‘প্রতিটি দায়িত্বই চ্যালেঞ্জিং। এটা নির্ভর করে বিষয়টা আপনি কীভাবে দেখছেন তার ওপর। অবশ্যই আমরা আগের অবস্থানে নেই। কিন্তু সত্যি কথা বলতে কি, আমাদের টি-টোয়েন্টি রেকর্ডটাতে উন্নতি করা খুব জরুরি।’
অধিনায়কত্বটা তাঁর কাছে নতুন কিছু নয়। ২০০৯ থেকে ২০১১ পর্যন্ত তিন ধরনের ক্রিকেটেই দেশকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। তবে এবার টি-টোয়েন্টির অধিনায়কত্বটা তাঁর কাছে নতুন কিছুই মনে হচ্ছে,

‘আমি যখন অধিনায়কত্ব করেছি, তখন বাংলাদেশ একেবারেই জিততে পারত না। এরপর আমরা টুকটাক জেতা শুরু করলাম। এখন তো নিয়মিতই জিতছি। টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক হিসেবে আমি দলকে নিয়মিতই জেতাতে চাই।’
এবারের চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে বাংলাদেশের গ্রুপটাকে বেশ কঠিনই মানছেন সাকিব। তারপরও প্রতিযোগিতায় ভালো করার ব্যাপারে দারুণ আশাবাদী তিনি, ‘কোনো সন্দেহ নেই, চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে আমরা কঠিন গ্রুপে পড়েছি। ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া তো প্রতিযোগিতার ফেবারিট। সব দলই ভালো, তবে ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া কঠিন প্রতিপক্ষ। আমরা চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে ভালো করার ব্যাপারে আশাবাদী। এই বিশ্ব প্রতিযোগিতায় আমরা এমন খেলা খেলতে চাই, যেন সবাই আমাদের মনে রাখে।’
আইপিএলে কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে এই মৌসুমে ম্যাচ খেলেছেন মাত্র একটি। সাকিবের মতো ক্রিকেটার বেশির ভাগ ম্যাচ বাইরে বসে আছেন, এটা মেনে নেওয়া একটু কঠিনই। সাকিব নিজে অবশ্য ব্যাপারটিকে স্বাভাবিকভাবেই দেখেন। প্রতিপক্ষের বিচারে ও টিম কম্বিনেশনের কারণে কোনো খেলোয়াড়ের সুযোগ না হওয়াটাকে খুব অস্বাভাবিক ব্যাপার মনে করেন না তিনি, ‘আমরা সবাই পেশাদার। একটা টিম কম্বিনেশন আছে, সেটা অনুসরণ করতে হবে, এ ছাড়া একাদশটা কিন্তু তৈরি হয় প্রতিপক্ষের শক্তি বিচারে। যারা খেলছে না, তারা সুযোগের অপেক্ষায় আছে। আমি আমার সুযোগের অপেক্ষায় আছি।’

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>