সুন্দরবনের আরও দুটি দস্যু বাহিনীর আত্মসমর্পণ

এপ্রিল ২৯ ২০১৭, ১৪:০৫

সুন্দরবনে সাম্প্রতিক সময় অন্যতম সক্রিয় জলদস্যু আলিফ ও কবিরাজ বাহিনীর ২৫ সদ‌স্য আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মসমর্পণ করেছেন। এ নিয়ে গত ১২ মাসে ছোট-বড় ১২টি জলদস্যু বাহিনী র‌্যাব ৮ এর কাছে আত্মসমর্পণ করল। আজ শনিবার বেলা সা‌ড়ে ১১টায় পটুয়াখালী শহরের শিল্পকলা একাডেমি মিলানায়তনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের উপস্থিতিতে আলিফ ও কবিরাজ বাহিনী আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মসমর্পণ করে। এর আগে মঙ্গলবার সকাল ৫টা থেকে বুধবার রাত পর্যন্ত সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জে র‌্যাবের বিশেষ অভিযানে কুখ্যাত জলদস্যু আলিফ ও কবিরাজ বাহিনীর প্রধান রাজুসহ ২৫ সদস্য আত্মসমর্পণ করেন। এ খবর নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব ৮ এর উপ-অধিনায়ক মেজর আদনান কবির।

আত্মসমর্পণকারীরা সকলেই খুলনা, সাতক্ষীরা ও বাগেরহাট জেলার বা‌সিন্দা। এদের কাছ থেকে দেশি-বিদেশি ৩১টি আগ্নেয়াস্ত্র এবং সকল প্রকার অস্ত্রের ১১১০ রাউন্ড তাজা গু‌লি উদ্ধার করা হয়েছে। এর মধ্যে ১০টি

বি‌দেশি একনলা বন্দুক, ৭টি বি‌দেশি দোনলা বন্দুক, ৪টি প‌য়েন্ট ২২ বোর বি‌দেশি এয়ার রাইফেল, ৬টি ওয়ান শুটার গান ও ৪টি কাটা রাই‌ফেল র‌য়ে‌ছে।

মেজর আদনান কবির জানান, আলিফ ও কবিরাজ বা‌হিনী পূর্ব ও প‌শ্চিম সুন্দরব‌ন এবং ব‌ঙ্গোপসাগরসংলগ্ন উপকূলবর্তী অঞ্চ‌লে সর্বা‌পেক্ষা স‌ক্রিয় জলদস্যু বা‌হিনী। এসব অঞ্চ‌লের বনজীবী ও জলজী‌বী সাধারণ মানুষ তা‌দের টার্গেট ছি‌ল। র‌্যাব ৮ এর ক্রমাগত অভিযানের কারণে কোণঠাসা হয়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়ায় তারা অনুধাবন করে তারা ভুল পথে পরিচালিত হয়েছিল।

১৯৮৭ সালে আ‌লিফ বা‌হিনী ও ২০১২ সাল থেকে কবিরাজ বাহিনী সুন্দরবনে বিপুল বিক্র‌মে জলদস্যুবৃ‌ত্তি শুরু করে। জলদস্যু আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানে র‌্যাব ৮ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. আ‌নোয়ার উজ জামানের সভাপ‌তি‌ত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ।

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>