সুন্দরবনে দস্যুতা রোধ করবই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আপডেট : April, 29, 2017, 7:12 pm

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ‘সকলের সহযোগিতা নিয়ে আমরা যেভাবে জঙ্গিবাদকে রুখে দিয়েছি, আমরা যদি সেভাবে কাজ করতে পারি, তাহলে সুন্দরবনসহ সাগরবক্ষের দস্যুতাও রোধ করতে পারব। সর্বোপরি কথা হলো, আমরা সুন্দরবনের দস্যুতা রোধ করবই।’

আজ শনিবার সকালে পটুয়াখালীর শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে বঙ্গোপসাগরের জলদস্যু আলিফ বাহিনীর প্রধান মো. আলিফ মোল্লা ওরফে দয়ালের নেতৃত্বে এবং কবিরাজ বাহিনীর প্রধান মো. ইউনুস আলী শেখ ওরফে কবিরাজ ওরফে লাদেনের নেতৃত্বে ২৫ জন জলদস্যু সদস্যের আত্মসমর্পণ ও আর্থিক অনুদান প্রদান উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরিউক্ত কথা বলেন।

বেলা সাড়ে ১১টায় পটুয়াখালী শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনের নির্ধারিত মঞ্চে এ আত্মসমর্পণপ্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়।

র‍্যাব-৮-এর অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. আনোয়ার উজ জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বরাস্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, একের পর এক জলদস্যু ও বনদস্যু যারা সাগরে ও সুন্দরবনকে ঘিরে নানা অপরাধ করত, তারা তদের ভুল বুঝতে পেরে আত্মসমর্পণ করছে।

আত্মসমর্পণকারী অপরাধীদের পুনর্বাসনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। যারা এখনো আত্মসমর্পণ করেনি, তাদের এই সুযোগ গ্রহণ করার আহ্বান জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক ও র‍্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ বলেন, ‘এখনো যেসব জলদস্যু-বনদস্যু সক্রিয় রয়েছে, তাদের আত্মসমর্পণ করতে হবে, নয় ভয়াবহ পরিস্থিতির কবলে পড়তে হতে পারে। আমরা নিরাপদ সুন্দরবন চাই। আপনাদের সহযোগিতা নিয়ে সুন্দরবনকে নিরাপদ রাখতে চাই। সুপথে ফিরে আসা জলদস্যুরা তাদের ভুল বুঝতে পেরেছে। আমরা চাই এখনো যারা দস্যুর সঙ্গে যুক্ত, তারা আত্মসমর্পণ করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার সুযোগ নেবে।’

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন পটুয়াখালী-৪ আসনের সাংসদ মাহাবুবুর রহমান তালুকদার, বরিশালের অতিরিক্ত পুলিশ মহাপরিচালক শেখ মো. আক্রাম হোসেন, কোস্টগার্ড বেইজ সিজিবি-অগ্রযাত্রার কমান্ডার কমোডর বশির উদ্দিন আহমেদ, পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসক এ কে এম শামিমুল হক ছিদ্দিকী, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খান মোশাররফ হোসেন, পটুয়াখালী পুলিশ সুপার সৈয়দ মোশফিকুর রহমান প্রমুখ।

Facebook Comments