সুস্থতার জন্য ‘গ্রিন থেরাপি’

আপডেট : August, 1, 2017, 11:59 pm

ইট-কাঠের নগরীতে সবুজের দেখা পাওয়াই মুশকিল। তার উপর যান্ত্রিক জীবনযাপনের কারণেও আমাদের যোগাযোগ কমছে প্রকৃতির সঙ্গে। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, সুস্থ থাকতে প্রকৃতির কাছাকাছি থাকার কোনও বিকল্প নেই। সবুজ প্রকৃতির রয়েছে এমন শক্তি যা নিমিষেই ভালো করে দিতে পারে মন। শারীরিকভাবেও সুস্থ থাকবেন যদি নিয়মিত প্রকৃতির সান্নিধ্যে থাকেন।

.

সুস্থতার জন্য প্রকৃতির সঙ্গে সময় কাটানো জরুরি

  • সুস্থ থাকার জন্য প্রতিদিনই পরিবেশের কাছাকাছি কিছু সময় কাটানো জরুরি। খেলাধুলা করতে পারেন। সবুজের আশেপাশে থাকলে ইতিবাচক প্রভাব পড়ে মস্তিষ্কের উপরে যা ভালো রাখে শরীর ও মন। খেলাধুলার সুযোগ না পেলে খোলা পার্কে কিছুক্ষণ হাঁটাহাঁটি করতে পারেন।
  • মানসিক চাপে বিপর্যস্ত হয়ে আছেন? প্রকৃতির সান্নিধ্যে কাটিয়ে
    আসুন কিছু সময়। সবুজের কাছাকাছি গেলে আমাদের মস্তিষ্কে বিশেষ কিছু হরমোনের ক্ষরণ বেড়ে যায়। যা স্ট্রেস কমাতে সাহায্য করে।
  • চিন্তা ভাবনার দুয়ার খুলে দেয় প্রকৃতি। প্রকৃতির যত কাছাকাছি থাকবেন, সৃজনশীলতা বাড়বে ততই।
  • ক্লান্তি দূর করতে গ্রিন থেরাপির বিকল্প নেই। শরীর ও মন সতেজ রাখতে নিয়মিত সবুজকে রাখুন আশেপাশে।
  • প্রকৃতির সঙ্গে সময় কাটালে বাড়ে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। প্রতিদিন কম করে ৩০ মিনিট প্রকৃতির মাঝে কাটানোর চেষ্টা করুন। সুস্থ থাকবে শরীর।
  • প্রতিদিন খালি পায়ে ঘাসে হাঁটতে পারেন। ভালো থাকবে শরীর ও মন।
  • গবেষণায় দেখা গেছে চোখ ভালো রাখতে প্রতিদিন সবুজের দিকে কিছুক্ষণ তাকিয়ে থাকা জরুরি। কাজ করতে করতে ক্লান্ত হয়ে গেলে সবুজের দিকে দৃষ্টি ফিরিয়ে নিন। এটি চোখের ক্লান্তি দূর করবে।

 

তথ্য: বোল্ডস্কাই

Facebook Comments