সেরা বাঙালির সম্মাননা পেলেন মাশরাফি

জুলাই ৩০ ২০১৭, ০৯:৪০

ক্রীড়া ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য ২০১৭ সালের সেরা বাঙালি খেলোয়াড়ের পুরস্কার পেয়েছেন বাংলাদেশ ওয়ানডে ক্রিকেটের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মোর্তজা। তাঁকে এই পুরস্কারে ভূষিত করেছে কলকাতা ভিত্তিক গণমাধ্যম এবিপি আনন্দ।

শনিবার কলকাতার দ্য গ্র্যান্ড ওবেরয় হোটেলে এক জমকালো অনুষ্ঠানে এই বাঙালি ক্রিকেটারের হাতে এই পুরস্কার তুলে দেন ভারতীয় নারী ক্রিকেট দলের অলরাউন্ডার ঝুলন গোস্বামী।

এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন পিয়ারলেসের কর্মকর্তা এস.কে.রায় ও ক্যামেলিয়া গ্রুপের চেয়ারম্যান নীলরতন দত্ত। এদিন ছোট মেয়েকে সঙ্গে নিয়েই মঞ্চে পুরস্কার নিতে ওঠেন টাইগারদের ওয়ানডে অধিনায়ক।

এর আগে ২০০৭ সালে বাংলাদেশি ক্রিকেটার হাবিবুল বাশার সুমন ও ভারতের সাবেক ক্রিকেট অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী’র হাতে উঠেছিল এই পুরস্কার। ২০১২ সালে খেতাবটি পেয়েছিলেন আরেক টাইগার ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান। এছাড়াও বিভিন্ন সময়ে এই পুরস্কার পেয়েছিলেন মনোজ তিওয়ারি, শোয়েব আখতার, ঝুলন গোস্বামী।

সৌরভ গাঙ্গুলীর পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট মঞ্চে মাশরাফি হলেন সফল অধিনায়ক। ওয়ানডেতে তিনি হলেন বাংলাদেশের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি। তাঁর ঝুলিতে ২৩২ টি উইকেট। তিন ফরম্যাটের ক্রিক্রেট মিলিয়ে অধিনায়ক হিসাবে তিনি জিতেছেন ৩৮ টি ম্যাচ। ২০১৫ সালের দলকে নিয়ে গেছেন বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে। তাঁর কাঁধে ভর করেই এবার চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সেমিফাইনালে পৌঁছয় বাংলাদেশ। বলের পাশাপাশি ব্যাট হাতেও ম্যাচের রং বদলেছেন তিনি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ম্যান অব দ্য ম্যাচ হয়েছেন ১৫ বার। এবিপি আনন্দের অভিমত মাশরাফির হাত ধরেই বাংলাদেশের ক্রিকেট পৌঁছেছে অন্য

উচ্চতায়। বিশ্বক্রিকেটে অন্যতম শক্তিশালী দল হিসাবে উঠে এসেছে বাংলাদেশ।

অভিনয়, সঙ্গীত, শিল্পকলা, ক্রীড়া, সাহিত্য, বিনোদন সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখা বাঙালি কীর্তিমানদের এদিন পুরস্কৃত করেছে এবিপি আনন্দ। এবার নিয়ে ১৩ বার এই পুরস্কার দিয়ে আসছে এই সংস্থাটি।

অভিনয়য়ের ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি হিসাবে এবিপি আনন্দের সেরা বাঙালি ২০১৭ পুরস্কার পেয়েছে বাংলাদেশের প্রখ্যাত অভিনেত্রী জয়া আহসান। জয়ার হাতে এই পুরস্কার হাতে তুলে দেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। এর আগে এই পুরস্কার পেয়েছেন মিঠুন চক্রবর্তী, সব্যসাচী চক্রবর্তী, পাওলি দাম, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, রাহুল বোস, দেবশঙ্কর হালদারের মতো ব্যক্তিত্বরা। এবিপি আনন্দের মতে অসাধারণ অভিনয় দক্ষতায় দুই বাংলার হৃদয় জয় করে নিয়েছেন জয়া।

এছাড়াও নাট্যকলা বিভাগে পুরস্কার পেয়েছেন বিভাস চক্রবর্তী, সঙ্গীতে কৌশিকী চক্রবর্তী, শিল্পকলায় চিত্রশিল্পী রামানন্দ বন্দোপাধ্যায়, বাণিজ্যে এই পুরস্কার পেয়েছেন বিশিষ্ট শিল্পপতি বিস্কফার্মের কর্ণধার কে.ডি.পাল, সাহিত্যে সেরা বাঙালির পুরস্কার পেয়েছেন কবি জয় গোস্বামী, বিনোদনে এই পুরস্কার পেয়েছেন প্রখ্যাত জাদুকর জুনিয়র পি.সি.সরকার।

লাইফটাইম অ্যাচিভমেন্ট পুরস্কার পেয়েছেন সাবেক বিমানবাহিনীর প্রধান অরূপ রাহা। তাঁর হাতে এই পুরস্কার তুলে ভারতের সাবেক স্থলসেনা প্রধান শঙ্কর রায় চৌধুরী। আর ২০১৭ সালের ‘সেরার সেরা বাঙালি’ পুরস্কার পেয়েছেন প্রখ্যাত অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। তাঁর হাতে এই পুরস্কার তুলে দেন কবি শঙ্খ ঘোষ। এর আগে এই পুরস্কারে ভূষিত হয়েছিলেন প্রিয়রঞ্জন দাসমুন্সি, মমতা ব্যানার্জি, সৌরভ গাঙ্গুলী, ফ্যাসন ডিজাইনার সব্যসাচী মুখোপাধ্যায় প্রমুখ।

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>