হলি আর্টিজানে শ্রদ্ধা

আপডেট : July, 1, 2017, 10:48 am

গত বছরের ১ জুলাই জঙ্গি হামলায় নিহতদের শ্রদ্ধা জানাতে হলি আর্টিজানের পুরনো রেস্টুরেন্টটি চার ঘণ্টা খোলা থাকবে। এমনকি নিহতদের শ্রদ্ধা জানাবার জন্য ওই ভবনের সামনে এজন্য একটি মঞ্চ তৈরি করা হয়েছে। হলি আর্টিজান কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে আজ শনিবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত সবার জন্য রেস্টুরেন্টটি উন্মুক্ত থাকবে। এদিকে শ্রদ্ধা জানাতে আসা মানুষের নিরাপত্তার জন্য পর্যাপ্ত পুলিশ ওই ভবনের ভেতর এবং আশপাশে রাখা হবে বলে থানা সূত্র জানিয়েছে।
জানা গেছে, জঙ্গি হামলার পর প্রায় সাড়ে চার মাস আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তত্ত্বাবধানে থাকে গুলশান-২ নম্বরের ৭৯ নম্বর সড়কের ৫ নম্বর প্লটে ভবনটি। গত বছরের ১৩ নভেম্বর পুলিশ মালিককে এর দায়িত্ব বুঝিয়ে দেয়। হলি আর্টিজানের অন্যতম মালিক সাদাত মেহেদী জানান, এক বছর আগে এদিন এখানে অনেক দেশি-বিদেশি মানুষকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। তাদের স্বজনেরা শ্রদ্ধা জানাতে আসবেন। মূলত এ বিষয়টি মাথায় রেখে চার ঘণ্টা খোলা রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এমনকি বাড়িটির
সামনে সাদা কাপড়ে মোড়ানো লম্বা আকৃতির একটি মঞ্চ তৈরি করা হয়েছে। এদিকে হলি আর্টিজানের বর্ষপূর্তিতে শ্রদ্ধা জানাতে ইতালি সরকারের চার সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল বাংলাদেশে এসেছে। ইতালি দূতাবাস এবং বাংলাদেশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যৌথ উদ্যোগে হবে ওই স্মরণ অনুষ্ঠান। জাপানের সাত নাগরিকের স্মরণে শোকসভার আয়োজন করছে জাপান দূতাবাস ও বাংলাদেশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।
অপর দিকে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আয়োজনে শহীদ মিনারে শনিবার বিকাল ৫টায় শান্তি সমাবেশ করবে সংস্কৃতকর্মীরা। তারা হলি আর্টিজানের নিহতদের স্মরণে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শোকের পুষ্পার্ঘ্য নিবেদন করবেন। শোকসঙ্গীতের পাশাপাশি নিহতদের স্মরণে প্রজ্বলিত হবে মোমবাতি। এ ছাড়া লেখক-শিল্পী-ছাত্র-শিক্ষক-সংস্কৃতিককর্মী-সাংবাদিক ও নাগরিকবৃন্দ- এ ব্যানারে বিকাল ৫টায় শাহবাগে ‘আঁঁধার কাটুক’ এ শিরোনামে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মোমবাতি প্রজ্বলন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, হলি আর্টিজান রেস্টুরেন্টে সশস্ত্র হামলা চালায় পাঁচ জঙ্গি। জঙ্গিরা নয়জন ইতালিয়ান, সাতজন জাপানি, একজন ভারতীয় নাগরিক এবং তিন বাংলাদেশি ও দুজন পুলিশ কর্মকর্তাসহ মোট ২২ জনকে নির্মমভাবে হত্যা করে।
Facebook Comments