২০১৯ সালে শেখ হাসিনার অধিনেই নির্বাচন হবে- বরিশালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

জুলাই ২৩ ২০১৭, ১৯:৩৭

শামীম আহমেদ, বরিশালঃ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রনলয়ের মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, ২০১৯ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধিনেই নির্বাচন হবে। আর কারো অধিনে নয়। তখন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ সকল প্রশাসন শুধু মাত্র নির্বাচন কর্মিশনের নির্দেশ শুনবেন। এরপরও বিএনপি নির্বাচনে আসতে ভয় পায়। বিদেশ থেকে দেশে আসুন (খালেদা জিয়াকে), নির্বাচনে অংশ নিন, নির্বাচনের মাঠে হবেই ফাইনাল খেলা।

আজ রোববার দুপুর আড়াইটায় বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজের অডিটোরিয়ামে বরিশালে বাংলাদেশ মেডিকেল এ্যাসোসিয়েশন’র আয়োজতে বিভাগীয় চিকিৎসক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, বিএনপি নির্বাচনে আসতে ভয় পায়। তাই নির্বাচন বানচাল করতে নানান সরযন্ত্র করে বেড়াচ্ছে। নিশ্চত আমরা এর সরযন্ত্র প্রতিহত করবো। আওয়ামী লীগ নির্বাচনে বিশ্বসী। তাই জোর করে নয়, মানুষের মন জয় করে আগামীতে আবারও আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করবে।

মন্ত্রী বলেন, জীবনযুদ্ধে একমাত্র নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আমরা হাড়িয়েছি শুধু পিতাকে আর তিনি হাড়িয়েছেন সব। তবুও এই দেশের মানুষকে ভালবেসে এখনো জীবন যুদ্ধ করে যাচ্ছেন এই মহান নেত্রী। নির্বাচনের বাকী আর মাত্র এক বছর। তাই এখনই ঘরে ঘরে গিয়ে আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের কথা বলতে হবে মানুষকে।

মোহাম্মদ নাসিম আরো বলেন, নিজের স্বার্থের জন্য হলেও ২০১৯ সালে আওয়ামী লীগকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করতে। আওয়ামী লীগ সরকার আবারও ক্ষমতায় না আসলে এই দেশ চলে যাবে সেই দূনীতির হাওয়া ভবন, জঙ্গীবাদের আশ্রয়-প্রশ্রয়দাতাদের কব্জায়। তাই জয় বাংলা শ্লোগান দিলেই জনগন ভোট দিবে না, জনগন কি পেয়েছে তা বুঝাতে হবে।

তিনি আরো বলেন, স্বাস্থ্য সুরক্ষা আইন তৈরি প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। অচিরেই এই আইনটি পাশ হবে। আইনের মাধ্যমে রোগী ও চিকিৎসকদের কল্যানে। এতো মধ্যে এই সরকার একসাথে ১০ হাজার নার্স নিয়োগ দিয়েছে। আগামীতে আরো নার্স নিয়োগ দেয়া হবে। সাথে দেশের সকল স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানে চিকিৎসক সংকট দুর করা হবে। ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর গ্রামের মানুষের দারগোরে স্বাস্থ্য সেবা পৌছে

দেয়ার জন্য কমিউনিটি ক্লিানিক চালু করে। কিন্তু বিএনপি সরকার ক্ষমতায় এসে তা বন্ধ করে দেয়। ফের আওয়ামী লীগ সররকার ক্ষমতায় এসে ওই কমিউনিটি ক্লিানিক গুলো চালু করেছে। মোট কথা আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসলে দেশের উন্নয়ন হয়।

সমাবেশের প্রধান বক্তা বরিশাল-১ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আবুল হাসনাত আব্দুল্লাহ’র দাবীর প্রেক্ষিতে স্বাস্থ্যমন্ত্রী চলতি অর্থ বছরে বরিশালের স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠান গুলো উন্নয়নের জন্য এক হাজার কোটি টাকা বরাদ্ধ দেয়ার ঘোষনা করে মন্ত্রী বলেন, আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষিণাঞ্চলের মানুষকে ভালবাসেন। তাই এখানে ইতো পূর্বে অনেক উন্নয়ন কাজ করা হয়েছে এই সরকারের সময়। বিশেষ করে পায়রা বন্দর, কুয়াকাটাকে পর্যটক নগরী গড়ে তুলেছেন। নিজস্ব অর্থায়নে নিমির্ত হচ্ছে পদ্মা সেতু। আর এই পদ্মা সেতু চালু হলে এই অঞ্চলের মানুষই সবচেয়ে উপকৃত হবেন। তাই দক্ষিণাঞ্চলের এই উন্নয়ন অব্যহত রাখতে আগামীতে এ অঞ্চল থেকে আওয়ামী লীগকে বিজয়ী করতে হবে।

সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ মেডিকেল এ্যাসেসিয়েশনের কেন্দ্রিয় সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, বরিশাল-২ আসনের সংসদ সদস্য এ্যাডভোকেটে তালুকদার মো. ইউনুস, বরিশাল-৫ আসনের সংসদ সদস্য জেবুন্নেছা আফরোজ ও বরিশাল-৩ আসনের সংসদ সদস্য এ্যাডবোকেট টিপু সুলতান ও বাংলাদেশ মেডিকেল এ্যাসেসিয়েশনের কেন্দ্রিয় মহাসচিব ডাঃ এহেতসামুল হক চৌধুরী দুলাল ও বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রর-ভিসি ডা. শরফুদ্দিন আহম্মেদ, বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাড. গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলাল ও সম্পাদক এ্যাড. একেএম জাহাঙ্গির।

বাংলাদেশ মেডিকেল এ্যাসেসিয়েশন বরিশাল জেলা শাখার সভাপতি ডা. মো. ইসতিয়াক হোসেন’র সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ডাঃ মনিরুজ্জামান’র সংঞ্চলনায় সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন, শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ভাস্কর সাহা, পরিচালক ডা. এসএম সিরাজুল ইসলাম, বরিশালের ডিআইজি শেখ মো. মারুফ হাসান স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের বরিশাল জেলা সভাপতি ডাঃ মুঃ কামরুল হাসান সেলিম, বিভাগের বিভিন্ন জেলার সিভিল সার্জন, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান রিন্টু, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল¬াহ প্রমুখ।

 

Facebook Comments

<a href=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/infra-add.jpg” target=”_blank” rel=”noopener”><img src=”http://barisallive24.com/wp-content/uploads/2017/05/Hoopers1.jpg” width=”331″ height=”270″ /></a>